রদবদল হচ্ছে মন্ত্রিসভায়, ডাক পেলেন কয়েকজন

সরকারের শেষ বছরে মন্ত্রিসভায় পরিবর্তন আসছে। বাড়ছে আকার। হচ্ছে রদবদলও। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ মন্ত্রী হচ্ছেন। রাজবাড়ী-১ আসনের কাজী কেরামত আলী ও লক্ষীপুর- ৩ আসনের সংসদ সদস্য বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা শাহাজাহান কামালও মন্ত্রিত্ব পাচ্ছেন বলে মন্ত্রিপরিষদ সূত্র জানিয়েছে। এছাড়া টেকনোক্র্যাট কোটায় মন্ত্রী হিসেবে মোস্তাফা জব্বারও বঙ্গভবনে ডাক পেয়েছেন বলে জানা গেছে।

কে কোন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাচ্ছেন তা জানাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন এসব ব্যক্তিরা। সরকারের পক্ষ থেকেও এ বিষয়ে কিছু বলা হয়নি। তবে আগামীকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় তাদের শপথ নেয়ার জন্য বঙ্গভবনে উপস্থিত থাকতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এছাড়া আরও দু’একটি মন্ত্রণালয়ে রদবদল হতে পারে বলে জানা গেছে।

সোমবার ডাক পাওয়া এমপিরা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তাদের প্রত্যেককে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বঙ্গভবনে থাকতে বলেছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্রের পিএস মোহাম্মদ উল্লাহ জানান, ‘মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্যারকে বঙ্গভবনে থাকতে বলেছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব।’

ধারণা করা হচ্ছে, ডাক পাওয়া এসব এমপিসহ কয়েকজনকে মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী করা হতে পারে।

গত ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে জয়ী হয়ে আওয়ামী লীগ টানা দ্বিতীয় দফায় সরকার গঠন করলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারায়ণ চন্দ্র চন্দকে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেন। ১৬ ডিসেম্বর মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ছায়েদুল হক মারা যাওয়ার পর মন্ত্রীর পদ খালি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হতে পারে।

এছাড়া সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়, তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর পদ খালি আছে।

নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানিয়েছে, কয়েকটি মন্ত্রণালয়ে রদবদলসহ মন্ত্রিপরিষদে কিছু নতুন মুখ নিয়ে আসা হবে।

মতামত দিন