নোয়াখালী খাল আর দুঃখ হয়ে থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী

‘নোয়াখালী খাল আর নোয়াখালীর দুঃখ হয়ে থাকবে না’

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর মহিপালে নির্মিত দেশের প্রথম ছয় লেন ফ্লাইওভার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই উড়ালসেতু উদ্বোধন করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মহিপালে যানজট ছিল একটা বড় সমস্যা। এই ফ্লাইওভার উদ্বোধনের মাধ্যমে সে সমস্যা দূর হবে। এতে ফেনীবাসীর দীর্ঘদিনের দুঃখ দূর হবে। অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড আরো হবে।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১৯ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের তত্ত্বাবধানে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আবদুল মোনেম লিমিটেড এই ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করেছে।

৬৯০ মিটার দীর্ঘ এবং ২৪ দশমিক ৬২ মিটার প্রশস্ত এই ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজে প্রায় ১৮২ কোটি টাকা ব্যয় হয়।
২০১৫ সালের নভেম্বরে এর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। তবে প্রায় ছয় মাস আগেই উদ্বোধন হতে চলেছে ফ্লাইওভারটির।

স্থানীয়রা জানান, এই ফ্লাইওভার ব্যবহার করে ঢাকা-চট্টগ্রামে চলাচলকারী গাড়িগুলো দ্রুত গন্তব্যে যেতে পারবে। এতে করে সময় যেমন বাঁচবে তেমনি যানজটেও পড়তে হবে না।

অপরদিকে ফ্লাইওভারের নিচ দিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রামগামী ছোট পরিবহন চলাচলের পাশাপাশি মহিপাল হয়ে বৃহত্তর নোয়াখালী ও অন্যান্য দূরপাল্লার গাড়িগুলো চলাচল করতে পারবে।

ফেনী পৌরসভার প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজি বলেন, এ সরকারের বিশাল সাফল্য এটি। এতে করে ফেনীর চিত্র পাল্টে যাবে। এ প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য ফেনীর সংসদ সদস্য নিজাম হাজারীসহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

মতামত দিন