সাকার বাড়িতে হামলায় জড়িত ছাত্রলীগ নেতাদের শাস্তির দাবি জানিয়েছে বিএনপি

বিএনপি নেতা গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী ও প্রয়াত সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর পৈত্রিক বাড়ি চট্টগ্রামের গুডস হিলে ভাঙচুর ও লুটপাটের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে বিএনপি।

শুক্রবার দুপুরে নগরীর বিএনপির কার্যালয় নাসিমন ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে ভাঙচুর, লুটপাটে ছাত্রলীগ জড়িত বলে অভিযোগ করেন উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার বেলায়েত হোসেন।

এ সময় তিনি ছাত্রলীগকে ‘সন্ত্রাসী’ হিসেবে উল্লেখ করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, সারাদেশে আজ অরাজকতা বিরাজ করছে। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে রাজনৈতিক নেতা তাদের বাড়িঘর সহায় সম্পত্তি কিছু আজ রক্ষা পাচ্ছে না। সরকার মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হচ্ছে। দলীয় সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিয়ে রাজনৈতিক নেতাদের বাড়ি ঘরে হামলা করছে।

তিনি গিয়াস কাদের চৌধুরীর বাড়িতে প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে হামলা ও অসংখ্য গাড়ি ভাঙচুর লুটপাটের সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের দাবি জানান।

লিখিত বক্তব্যে ইঞ্জিনিয়ার বেলায়েত হোসেন বলেন, গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীসহ বিএনপি নেতাদের নামে থানা ও আদালতে ৪টি মামলা করা হয়েছে। এসব মামলা কেন হয়েছে কি কারণে হয়েছে আমরা জানি না।

গুডস হিলে হামলাকারীরা নিজেরাই ফেসবুকে তাদের হামলার ছবি ভিডিও আপলোড করে ভাইরাল করেছে। বিএনপি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও আইনগত ন্যায় বিচার চায়।

সংবাদ সম্মেলন থেকে সকল মামলা প্রত্যাহার এবং বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেন তারা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য উদয় কুসুম বড়ুয়া, মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান, মহানগর বিএনপি নেতা কামরুল ইসলাম, দক্ষিণ জেলা বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল গাফ্ফার, যুবদলের সভাপতি বদরুল খায়ের, নগর বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন লিপু প্রমুখ।

উল্লেখ্য, বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বিএনপি নেতা গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী ও প্রয়াত সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বাড়ি চট্টগ্রামের গুডস হিলে ভাঙচুর ও লুটপাট করে দুর্বৃত্তরা।

মতামত দিন