বান্দরবানে নাশকতা হামলার পরিকল্পনায় ৫ মহিলা ও ১ পুরুষ আটক

লামা(বান্দরবান) প্রতিনিধি:

বান্দরবানে নাশকতা হামলার পরিকল্পনায় ৫ মহিলা ও ১ পুরুষ শিবিরকর্মীকে আটক করা হয়েছে। ১০ জুন রবিবার দুপুর ১২ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিক্তিতে পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদারের নির্দেশনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইয়াসির আরাফাতসহ পুলিশের একটি দলেন অভিযানে বান্দরবান আল ফারুক ইনিস্টিটিউট স্কুলের একটি কক্ষ থেকে গোপনীয় মিটিং করার সময় তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন সীতাকুন্ডের সৈয়দপুর ইউনিয়নের বিবি খাতিজা (২৪) চট্রগ্রাম চাঁদগাও থানার ওয়াদ্দা বেগম (১৮) বান্দরবান ফায়ার সার্ভিস এলাকার তাহমিনা সুলতানা (১৮) বালাঘাটা ১ নং ওর্য়াডের নাইমা ফারজানা (১৮) মেম্বার পাড়ার শামিমা আক্তার (১৯) বান্দরবান কেন্দ্রীয় মসজিদ সংলগ্ন ধোপা পুকুর পার এলাকার আবদুল মালেক(৪০) ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বড় ধরনের প্রান নাশকতা হামলার গোপনীয় এক পরিকল্পনা করছিল এই শিবিরকর্মীরা আর তার জন্য প্রস্তুত করা হয় গোপনীয় মিটিং । আর এই নাশকতার পরিকল্পনার নেতৃত্ব প্রদান করছিলেন চট্রগ্রামের সীতাকুন্ড থেকে আগত বিবি খাতিজা ও বান্দরবান আলফারুক ইনস্টিটিউট স্কুল এর পিয়ন মো: মালেক ,তাদের যেীথ পরিকল্পনার অংশ হিসাবে নাশকতার পরিকল্পনায় অংশ নেন অনান্য শিবিরকর্মীবৃন্দ । পুলিশের উপস্থিতি টের পেলে ২ জন শিবিরকর্মী মিটিং থেকে পালিয়ে যায় , তবে তাদের ধরার জন্য পুলিশ তদারকি করছে । এই সময় তাদের কাছে থেকে নাশকতা হামলার গোপনীয় কাগজ পএ , ইসলামিক বিভিন্ন সামগ্রী উদ্ধার করা হয়।

নাশকতার হামলার ব্যাপারে জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইয়াসির আরাফাত ও ওসি গোলাম সরোয়ার জানান , বান্দরবান শান্তি প্রিয় জেলা যে বা যাহারা পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের শান্তি শৃঙ্খলা নষ্ট করে বান্দরবান জেলাকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাবে তাদের বিরুদ্দে কঠোর আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে । দেশের শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় মাদক দমনের পাশা পাশি সকল জঙ্গীবাদকে দমন করে বান্দরবান জেলার শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষা করা হবে । বর্তমানে আটককৃত শিবিরকর্মীদের বান্দরবান সদর থানায় রাখা হয়েছে এবং নাশকতা হামলার ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে ।

মতামত দিন