বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে যুবরাজের উপস্থিতিতে সৌদির লজ্জাজনক হার

মনোমুগ্ধকর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। গান গেয়ে স্টেজ মাতালেন বব উইলিয়ামস ও এইডা গারিফুলিনা। তাদের মন মাতানো গান ও রাশিয়ার ঐতিহ্য প্রদর্শনের মাধ্যমে লুঝনিকি স্টেডিয়াম যেন হয়ে ওঠে একখণ্ড রাশিয়া। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘোষণার পরই উদ্বোধন হয় বিশ্বকাপের। এরপরই মহারণে নেমে পড়ে স্বাগতিক রাশিয়া ও সৌদি আরব।

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়ে সৌদি আরবকে রীতিমতো গোলবন্যায় ভাসিয়েছে রাশিয়া। সৌদি আরবকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে উদ্বোধনী ম্যাচে দুর্দান্ত জয়ে শুভ সূচনা করলো লেনিনের দেশ। সাত ম্যাচ জয়হীন থাকার পর এ ম্যাচে সৌদি আরবের বিপক্ষে মাঠে নামে লেভ ইয়াসিনের দেশ।

উদ্বোধনী ম্যাচ বলে কথা! জমজমাট লড়াই দেখার প্রত্যাশায় ছিলেন বিশ্বের কোটি কোটি ফুটবলপ্রেমী। গ্যালারিতে উপস্থিত ছিলেন সৌদির আলোচিত-সমালোচিত যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এছাড়াও স্বাগতিক দেশের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনও যুবরাজের সঙ্গেই মাঠে বসে খেলা দেখেন।

ম্যাচের আগ পর্যন্ত ফুটবলবোদ্ধাদের মতামত ছিল সৌদি-রাশিয়া প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচ হবে। কিন্তু আশায় গুড়েবালি। যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের উপস্থিতিতে লজ্জাজনকভাবে স্বাগতিক রাশিয়ার কাছে হেরেছে সৌদি আরব। স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৫-০ গোলের শোচনীয় পরাজয় বরণ করেছে তারা।

বহু প্রতীক্ষা শেষে রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। রঙিন সাজে সজ্জিত হয় মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়াম। বর্ণিল অনুষ্ঠান শেষে রাত ৯টায় গড়ায় এবারের আসরের প্রথম ম্যাচ। জয়ের লক্ষ্যে বেশ শক্তিশালী একাদশ নিয়ে মাঠে নামে দুদল। তবে প্রথমে এগিয়ে যায় রাশিয়া। ম্যাচের ১২ মিনিটে দুর্দান্ত হেডে নিশানাভেদ করে দলকে লিড এনে দেন ইউরি গাজিন্সকি।

এগিয়ে গিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠে রাশিয়া। মুহূর্মুহু আক্রমণে কোণঠাসা করে ফেলে সৌদি আরবকে। ফলে ব্যবধান বাড়তেও সময় লাগেনি। ৪৩ মিনিটে বল ঠিকানায় পাঠিয়ে স্কোরলাইন ২-০ করেন ডেনিস চেরিসেভ। এ নিয়েই বিরতিতে যায় রাশিয়া।

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমেই আক্রমণে যায় সৌদি আরব। বারবার আক্রমণ হানার চেষ্টা করে তারা। এতে হিতে ঘটে বিপরীত। ৭১ মিনিটে পাল্টা আক্রমণে গোল করে দলের ব্যবধান বাড়ান আর্তেম দিজিউবা।

এরপর ছন্দময় ফুটবল উপহার দেয় রাশিয়া। একের পর এক আক্রমণে প্রতিপক্ষকে ব্যতিব্যস্ত রাখে তারা। আবারো আলোতে চেরিসেভ। ইনজুরি টাইমের প্রথম মিনিটে বল জালে জড়ান তিনি। আর বাঁশি বাজার ঠিক আগ মুহূর্তে শেষ পেরেকটি ঠুকেন আলেকজান্ডার গোলোভিন। এতে ৫-০ গোলের জয়ে ২১তম আসরের শুরুটা স্বাগতিকের মতোই হলো রাশিয়ার।

মতামত দিন