খাগড়াছড়িতে আজ আবার অবরোধের ডাক

 

ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর সংগঠক মিঠুন চাকমাকে হত্যা ও তাঁকে পার্টি অফিসে এনে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদনে বাঁধাদানের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধ পালনকালে টিয়ারসেল নিক্ষেপ ও পিকেটিং-এ বাঁধা দেয়ার প্রতিবাদে আজ রবিবার খাগড়াছড়ি জেলায় আরো ১দিন সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধের ঘোষণা দিয়েছে ইউপিডিএফ। শনিবার রাতে  ইউপিডিএফের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের নিরন চাকমা সাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে খাগড়াছড়িতে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট’র (ইউপিডিএফ) এর কেন্দ্রীয় নেতা মিঠুন চাকমাকে গুলি করে হত্যাকারীদের বিচার দাবী ও তার দাহক্রিয়া অনুষ্ঠানে আসতে প্রশাসনের বাঁধার প্রতিবাদে জেলার বিভিন্ন স্থানে গাড়ীতে অগ্নিসংযোগ,ভাংচুর,পর্যটকদের মারধর, পিকেটার কর্তৃক পুলিশদের মারধরের ঘটনার মধ্য দিয়ে ইউপিডিএ ‘র ডাকা শনিবার সকাল-সন্ধ্যার অবরোধ পালিত হয়।

অবরোধ চলাকালে মানিকছড়ির গাবামারায় টমটমে অগ্নিসংযোগ,জালিয়াপাড়ার এগার মাইল এলাকায় গাড়ী ভাংচুর ও বিকেল তিনটায় জেলা সদরের কৃষি গবেষনার এলাকায় মাইক্রোতে আগুন সদরের ছয় মাইল এলাকায় মোটরসাইকেল আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সকাল থেকে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের চেঙ্গীব্রীজ এলাকায় পুলিশের সাথে পিকটারদের সংঘর্ষ, পুলিশের শর্টগানের গুলি ও চোরাগোপ্তা হামলায় এএসই আবুল হোসেনসহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে বলে জানা যায়।

পিকেটাররা খাগড়াছড়ি-পানছড়ি সড়কসহ বিভিন্ন স্থানে রাস্তার উপর গাছ কেটে সড়ক অবরোধ করে। এছাড়া জেলার বিভিন্ন স্থানে পর্যটকবাহী গাড়ির উপর পিকেটাররা ঢিল ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে।

অবরোধ চলাকালে আভ্যন্তরীন ও দুরপাল্লা সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। তবে অবরোধ চলাকালে বেকায়দায় পড়েছে শত শত পর্যটক। অপ্রীতিকর ঘটনার শঙ্কায় নিরাপত্তা বাহিনীর টহল জোরদার করা হয়েছে। জেলা ও বিভিন্ন উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্পর্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা ছিল।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেক মোহাম্মদ আব্দুল হান্নান জানান, পিকেটাররা চোরাগোপ্তা ভাবে বিভিন্ন স্থানে হামলা চালাছে। অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলে তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, গত ৩ জানুয়ারি দুপুরে খাগড়াছড়ি জেলা শহরের সুইস গেইট এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে পাহাড়ি আঞ্চলিক সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট’র (ইউপিডিএফ) কেন্দ্রীয় নেতা মিঠুন চাকমা নিহত হয়েছে। ইউপিডিএফ এ হত্যাকান্ডের জন্য ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিককে দায়ী করে। তবে এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি।

মতামত দিন