শীতের শালে স্টাইল

শীতে রুচিশীলতার তাগিদে বৈচিত্র্য এসেছে পোশাকেও। আর তাই এই শীতে চমৎকার ডিজাইন প্যাটার্নের ডাবল কিংবা সিঙ্গেল শাল পাওয়া যাচ্ছে বাজারে। নারী এবং পুরুষ উভয়ের জন্য তৈরি করা হয়েছে নান্দনিক শাল। নারীদের তুলনায় পুরুষদের শাল একটু বড় হয়ে থাকে। ছেলেদের শালগুলো কিছুটা সাদামাটা। তবে সবচেয়ে বেশি নান্দনিক সৌন্দর্য মেয়েদের শালে।

খাদি, উল, কটন কাপড়ের শাল এরই মধ্যে দেখা যাচ্ছে মার্কেটগুলোতে। হাতে বোনা মোটা কটনের শালও রয়েছে। এছাড়াও কাশ্মিরী, দেশি সিল্কের শাল তো রয়েছেই। ডিজাইনের ক্ষেত্রে শাড়ি বা সালোয়ার কামিজের সঙ্গে ব্যবহার উপযোগী শালে ক্রিস্টাল এবং স্টোন ব্যবহার করা হয়েছে।

শীতে শালের ব্যাপক কালেকশন নিয়ে বাজারে নেমেছে দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো। শীতের সময় রঙিন রঙের চাহিদার কথা মাথায় রেখেই বাজারে এসেছে রঙ- বেরঙের শাল। শীতের শুষ্কতাকে সজীব করতেই সবুজ, হলুদ, নীল, লাল, কমলা, বেগুনি রঙের শাল এনেছে ফ্যাশন হাউসগুলো। এসব শালেও আছে স্ক্রিনপ্রিন্ট, টাইডাই, অ্যাম্ব্রয়ডারি কিংবা হাতের কাজ।

মেয়েদের জিন্স, টি-শার্ট কিংবা সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে ম্যাচ করা শালে হাতের কাজ এবং অ্যাম্ব্রয়ডারির প্রাধান্য রয়েছে। পাশাপাশি পাইপিন দিয়ে বর্ডারে কাজ করে আনা হয়েছে নতুনত্ব। উলেন কিছু শাল রয়েছে, যা দেখতে খুবই আকর্ষণীয়। ওজনে খুব হাল্কা, কিন্তু বেশ গরম। সহজেই বহনযোগ্য বলে কদরও অনেক বেশি।

আর আপনি চাইলে প্রয়োজনে এই শীত পোশাকটির দোকান খুঁজে নিতে পারেন রাজধানীর বঙ্গবাজার, ধানমণ্ডি হকার্স মার্কেট, ফার্মগেট, নিউ মার্কেটে। সেখানে কিছু সুলভেও মিলতে পারে পছন্দের পণ্যটি। শীতের এ সময়টায় শালের পসরা সাজায় দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো। বাংলার মেলা, রঙ, দেশাল, নিত্য উপহার, কে-ক্রাফট, আড়ং, অঞ্জন’স, ময়ূরী, নবরূপা, বিবিয়ানা, নগরদোলা, নিপুণসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস এরই মধ্যে শালের আয়োজন শেষ করেছে।

এছাড়াও শাহবাগ আজিজ মার্কেট, বনানী ১১ নম্বর রোড, বেইলি রোড কিংবা মিরপুর ১০ নম্বরে গেলে বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে নতুন নতুন ডিজাইনের শাল পাবেন। সাতশো-হাজার থেকে আড়াই-তিন হাজার টাকা দামের শালের দেখা মিলবে উল্লিখিত মার্কেটগুলোতে।

মতামত দিন