মানসিক ডাক্তার ২৪ ঘন্টা এসি চালিয়ে রাখতেন, তাই.. (ভিডিও)

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে এই আগুনের সুত্রপাত হয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট আধঘন্টার চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

দিনরাত ২৪ ঘন্টাই এই বিভাগের প্রধান এসি চালিয়ে রাখতেন বলেই এই আগুন লেগেছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালটির বৈদ্যুতিক বিভাগের লোকজন।

এর আগে সাড়ে পাঁচটার দিকে নিচতলার তলার মানসিক রোগ বিভাগে একটি অস্থায়ী স্টোররুমে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এদিকে আগুন লাগার পর সেখানে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। লোকজন আতঙ্কিত হয়ে ছোটাছুটি শুরু করেন। তবে কেউ হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

উক্ত বিভাগের প্রধান ডা: মহীউদ্দিন এ সিকদার ২৪ ঘন্টা এসি চালু রাখতেন –প্রায় সময় বন্ধ না করে অফিস তালা দিয়ে চলে যেতেন, যার কারনে এসি থেকে আগুনের সুত্রপাত হয় বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের ইলেকট্রিক্যাল টেকনেশিয়ান সাইফুর রহমান।তিনি বলেন, এসি গরম হয়ে এ আগুনের ঘটনা ঘটে। সবসময় ডাক্তাররা এসি চালু রেখে চলে যায়। ডাক্তারদের বারবার এসি বন্ধ রাখার জন্য বলা হলেও তারা এসি বন্ধ না করার কারনে এই দূর্ঘটনা ঘটে।

ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক পূর্ণ চন্দ্র মুৎসুদ্দী বলেন, মানসিক রোগ বিভাগের ডা. এম মহিউদ্দিনের চেম্বারের এসি থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়। পরে নিচতলার স্টোররুমে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আমরা দ্রুততার সঙ্গে রোগীদের বের করে কোনো ক্ষয়ক্ষতি ছাড়া আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জহিরুল হক ভূঁইয়া বলেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগেছিল। আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

হাসপাতালের প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বলেন, মানসিক রোগ বিভাগের একটি রুমের এয়ার কন্ডিশনার (এসি) থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

মতামত দিন