লামায় নদীতে ডুবে ২ বছরের শিশুর মৃত্যু

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধি:

লামায় নদীর পানিতে ডুবে আফিজা আকতার (২) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (০৩ আগষ্ট) বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলার রুপসীপাড়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড ইব্রাহিম লিডার পাড়ায় এই ঘটনা ঘটে। সে ইব্রাহিম লিডার পাড়ার মো. জসিম উদ্দিন প্রকাশ বাছেক ও ইয়াছমিন আক্তারের মেয়ে।

নিহত শিশুর মা ইয়াছমিন আক্তার বলেন, আমি সংসারের গৃহস্থালি কাজ করছিলাম। আমার মেয়ে আফিজা আকতার উঠানে খেলছিল। বাড়ি হতে ১শত ফুট পূর্ব পাশ দিয়ে লামা খালটি প্রবাহিত হয়েছে। কখন যে বাচ্চাটি খেলার ছলে খালের পাড়ে চলে যায় আমি বুঝতে পারিনি। কিছুক্ষণ পরে লোকজনের চিৎকার শুনে দৌড়ে বেরিয়ে এসে শুনি বাচ্চা পানিতে পড়েছে এবং স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে লামা হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছে। আমি ও আমার স্বামী তাদের সাথে যাই। ডাক্তার বলেন হাসপাতালে নেয়ার আগেই বাচ্চা মারা গেছে। মৃত ঘোষণা করলে আমরা বাচ্চাকে বাড়িতে নিয়ে আসি।

প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান, আমরা লামা খাল ও মাতামুহুরী নদীর মোহনায় বসে বড়শি দিয়ে মাছ ধরছিলাম। হঠাৎ পানি দিয়ে একটি শিশু ভেসে আসতে দেখে তাকে উদ্ধার করে লামা হাসপাতালে নিয়ে যায়। লামা খাল দিয়ে শিশুটি ভেসে আসে। পরে জানতে পারি শিশুটি অংহ্লা পাড়ার বাসিন্দা মো. জসিম উদ্দিনের। তাদের বাড়ি হতে প্রায় ৫শত গজ নিচে লামা খাল ও মাতামুহুরী নদীর মোহনা হতে আমরা শিশুটিকে উদ্ধার করি।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লামা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আব্দুল্লাহ আল বাকী। তিনি বলেন, শিশুটির স্বজন ও এলাকার বেশ কয়েকজন মুরুব্বীদের কথা বলি। মায়ের অগোছরে শিশুটি পানিতে পড়ে মারা গেছে বলে তারা জানায়। শিশুর শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন নেই।

পানিতে ডুবে মৃত্যু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, গণ্যমান্য ব্যক্তি ও শিশুর পিতা-মাতার সম্মতিতে লাশটি দাফন সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে।

মতামত দিন