বছর না পেরুতেই পুকুরে ডুবে এক পরিবারের দ্বিতীয় শিশুর মৃত্যু

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধি:

গেল বছর জমি চাষ করার সময় নদীতে ডুবে মারা গিয়েছিল একটি ছেলে।বছর না পেরুতেই সেই পরিবারেরই দ্বিতীয় শিশুটিও মারা গেল পুকুরে ডুবে ।বান্দরবানের লামার ডলুঝিরি নামক স্থানে সোমবার (১৯ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৯টায় রিয়াজ নামে ঐ পরিবারের দ্বিতীয় শিশুর মৃত্যুর এই ঘটনা ঘটে।

লামা সংবাদদাতা জানান, লামায় পানিতে ডুবে মো. রিয়াজ নামে দেড় বছর বয়সের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। লামা হাসপাতাল পাড়া সংলগ্ন ডলুঝিরি নামক স্থানে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুটির মৃত্যু হয়। আধাঘন্টা খোঁজাখুঁজির পরে পুকুরের পানিতে শিশুর মৃতদেহ ভেসে উঠলে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে লামা হাসপাতালে নিয়ে আসে।

হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করে বলেন, প্রায় ১ ঘন্টা পূর্বে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। পানিতে ডুবে যাওয়ার কারণে শিশুটি মারা গেছে। শিশুটি লামা পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড হাসপাতাল পাড়া এলাকার শাহ আলমের ছেলে। ঘটনাস্থল লামা সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ডলুঝিরি।

শিশুটির পিতা শাহ আলম বলেন, ডলুঝিরিতে আমাদের খামার বাড়ি। আমার স্ত্রী কাজকর্ম করছিল। কখন যে চোখের অগোচরে ছেলেটি পুকুরে পড়ে গেছে তা আমার স্ত্রী খেয়াল করেনি। বছর খানেক আগে থানছি উপজেলায় জমি চাষ করতে গিয়ে আমার আরেক ছেলে নদীতে ডুবে মারা যায়। শোকে আমার স্ত্রী পাথর হয়ে গেছে।
শুনামাত্র ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, লামা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. আশরাফ। তিনি বলেন, শিশুটির লাশের প্রাথমিক সুরহাতাল করা হয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও শিশুটির বাবা-মায়ের মতামত নিয়ে এবং কারো কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ দাফনের জন্য বলেছেন থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অপ্পেলা রাজু নাহা।

মতামত দিন