চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ছুঁইছুঁই, বিআইটিআইডি ল্যাব প্রধানও আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চট্টগ্রামে ঈদের পরদিন ৫০৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে আরও ৯৮ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। চট্টগ্রামের তিনটি ও কক্সবাজারের একটি ল্যাবে এসব নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা শনাক্ত হয়। এ নিয়ে চট্টগ্রামে এক হাজার ৯৮৫ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

এবার করোনা আক্রান্তদের তালিকায় আছেন র‌্যাব, পুলিশের পাশাপাশি বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) হাসপাতালের করোনা শনাক্তকরণ ল্যাবের প্রধান ডা. শাকিল আহমেদ ও চন্দনাইশ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শাহীন হোসাইন চৌধুরী রয়েছেন।

এছাড়া চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দীপ্তি ও চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের এক কর্মকর্তাসহ বেসরকারি দুটি টিভি চ্যানেলের চট্টগ্রাম অফিসের দুইজন, একজন ফটোসাংবাদিকও আক্রান্তের তালিকায় রয়েছেন।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বী গণমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

গত ২৪ ঘন্টায় চট্রগ্রামে মোট চারটি ল্যাবে ৫০৭ টি নমুনা পরীক্ষা হয়। এর মধ্য ৯৮ টি করোনা পজিটিভ আসে। এর মধ্যে নগরীর ৮৮ টি। বাকি ১০ টি চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলার। জেলার মধ্যে লোহাগাড়ায় ১ জন, চন্দনাইশে ১ জন, পটিয়ায় ১ জন, রাউজানে ২ জন, ফটিকছড়িতে ২ জন ও সন্দ্বীপে ৩ জন।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, বিআইটিআইডিতে ৩৩১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে চট্টগ্রামে নতুন করে ৫০ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া আর চট্টগ্রামে একজনের দ্বিতীয় দফা পরীক্ষায় করোনাভাইরাস পজিটিভ পাওয়া গেছে।

একই সময়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৬৭ জনের নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ৪৬ জনের করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। এরমধ্যে মহানগর এলাকার ৪৪ জন। বাকি ২জন বিভিন্ন উপজলার।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ১০০টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবেও ৯ জনের নমুনা পরীক্ষা ১জনের করোনা মিলেছে।

চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত যে এক হাজার ৯৮৫ জনের মধ্যে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে মহানগর এলাকায় ১ হাজার ৫৫৯ জন ও উপজেলা পর্যায়ে ৪২৬ জন আছেন। চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন অন্তত ৬০ জন। সুস্থ হয়েছেন ১৮২ জন।

মতামত দিন