মানসিক ভারসাম্যহীন বাক্কারের ঘর মেরামত করে দিলেন বিএনপি নেতা জামাল

ইকবাল হোসেন, রাঙামাটি ||

দেশে করোনা পরিস্থিতির সাথে পাহাড়ে বসবাসরত বাসিন্দাদের দরজায় কড়া নাড়ছে কালবৈশাখী ঝড়। প্রশাসনিক নির্দেশনায় বর্তমানে জেলার মানুষ পরিবার নিয়ে নিজ বাসস্থানেই বেশিরভাগ সময় কাটাচ্ছে । কিন্তু সবার কপালে তো আর মাথাগোঁজার ঠাই হিসেবে পাকাপোক্ত বাড়ি জুটেনা।

তেমনি একজন রাঙামাটি শহরের রিজার্ভ বাজারের মহসিন কলোনি এলাকায় বসবাসরত মানসিক ভারসাম্যহীন- জাগের হোসেন বাক্কা। সে সকলের কাছে “বাক্কা” নামেই পরিচিত। করোনার এই দূর্যোগময় পরিস্থিতিতে পরিবার নিয়ে ছোট্ট এক কুটিরে অনেক কষ্টে জীবনযাপন করে আসছে বাক্কা।

তার মধ্যে থেমে থেমে কালবৈশাখী ঝড়ের পানি টিন ভেদ করে ঘরে ঢুকার চিত্র চোখে পড়েছে রাঙামাটির বিএনপি নেতা মো. জামাল উদ্দীনের। তাই তিনি প্রতিবেশির এই নিদারুণ কষ্ট দেখে তাৎক্ষনিক সিদ্ধান্ত নিয়ে ৩৫হাজার টাকা খরচ করে বাক্কার ঘরটি মেরামত করে দিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার এই বিএনপি নেতা রিজার্ভ বাজার ১নং ওয়ার্ডের মহসিন কলোনি এলাকার জাগের হোসেন বাক্কার ঘরটির মেরামতের কাজ সম্পন্ন করেছেন।

এ বিষয়ে তিনি প্রতিবেদককে জানান, অঘোষিত লকডাউনের সময় আমি সাধ্যমতো কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায়দের ত্রাণ সহায়তা করেছি। লকডাউন শিথিল হওয়ায় অসহায়দের জন্য কিছু কাজ করার উদ্দেশ্য প্রবাসী বন্ধুর সহযোগীতায় আমি এই কাজটি করেছি। যাতে বাক্কার মত মানসিক ভারসাম্যহীন হতদরিদ্র মানুষটি তার পরিবার নিয়ে ঘরটিতে অন্তত নিরাপদে বসবাস করতে পারে। তিনি আরো বলেন, মানুষের আয় রেজগার না থাকায় অনেকেই এই বর্ষা মৌসুমে তাদের ঘর মেরামত করতে পারছেনা। তাই সমাজের বিত্তশালীরা যদি এগিয়ে আসে তাহলে কিছু অসহায় হতদরিদ্র মানুষ এই করোনা কালে পরিবার নিয়ে অন্তত নিরাপদে ঘরে থাকতে পারবে।

মতামত দিন