ইউপি সদস্য হত্যার প্রতিবাদে বান্দরবান সদর আ.লীগের নিন্দা ও প্রতিবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক ||

পার্বত্য জেলা বান্দরবানের সন্ত্রাসী কর্তৃক কুহালং ইউনিয়ন পরিষদে ৫নং ওয়ার্ডে মেম্বার চাই সা হ্লা মারমাকে বাকীছড়া কিংওয়া (মধ্যম পাড়া এলাকায় গুলি করে হত্যার ঘটনায় নিন্দা, প্রতিবাদ ও উদ্বেগ জানিয়েছে বান্দরবানের সদর উপজেলা আ.লীগ।

নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বান্দরবান সদর উপজেলা শাখার সভাপতি পাইহ্লাঅং মারমা বলেন, বান্দরবান পার্বত্য জেলার কুহালং ইউনিয়নে বাকীছড়া কিখংওয়া (মধ্যম পাড়ায়) গত (১৫ই জুন) সন্ধ্যা অনুমানিক সাড়ে ৭টায় একদল সন্ত্রাসী কুহালং ইউনিয়ন পরিষদে ৫ নং ওয়ার্ডে মেম্বার চাই সা হ্লা মারমা এর বাড়ীতে এসে গুলি করে নির্মম ভাবে হত্যা করে পালিয়ে যায়। আমরা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বান্দরবান সদর উপজেলা শাখা উদ্বেগ প্রকাশ করছি এবং দোষী ব্যক্তিদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি প্রদান করার জন্য প্রশাসনকে দাবি জানাচ্ছি।

তিনি আরও জানান, গত ফেব্রুয়ারী মাসেও রাজবিলা ইউনিয়নে জামছড়ি পাড়ায় ৬ জনকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে বর্বরোচিত হামলা চালিয়ে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বাচনু মারমাকে নির্মম ভাবে হত্যা করেছে। পার্বত্য বান্দরবানে পার্বত্য আঞ্চলীগ সন্ত্রাসী গ্রুপটি টার্গেট কিলিং বেছে নিয়ে আওয়ামী লীগ দলকে নেতাকর্মী শূন্য করার উদ্দেশ্যে মংপু, চথোয়াইমং, মংমংথোয়াইদের মত এবারেও তারা আঞ্চলিক সন্ত্রাসী গ্রুপটি আওয়ামী লীগে সক্রিয় কর্মীদেরকে বেছে বেছে হত্যা করছে।

আরো বিভিন্ন এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীকে খুঁজে এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বর্তমান সরকার পার্বত্য এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা, চলমান উন্নয়নকে ব্যাঘাট ঘটানোর জন্য আঞ্চলিক সন্ত্রাসী গ্রুপ গুলো এঅঞ্চলে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছে। এহেন কার্যকলাপকে তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

মতামত দিন