বান্দরবানে লকডাউনের ৯ম দিনেও হাট-বাজারে মানুষের ঢল

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান ॥

রেড জোন বান্দরবানে শতক ছাড়ালো আক্রান্তের সংখ্যা। একশ চৌদ্দজনের নমুনা পরীক্ষায় গতচব্বিশ ঘন্টায় পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য’সহ সর্ব্বোচ্চ ১৭ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে জেলায়। অন্যদিকে লকডাউনের ৯ম দিনে সাপ্তাহিক খোলার দিনে বান্দরবানে হাট-বাজারে মানুষের ঢল নেমেছে। কাচা বাজার, মুদি দোকান, মাছ-মাংসের বাজার সবখানেই উপড়ে পড়া ভীড় ছিলো ক্রেতা সাধারণের। কোনো স্বাস্থ্য বিধি মানছে জনসাধারণ। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত ছিলো মানুষের এই সমাগম। ফলে মানুষের অসচেতনতায় রেড জোন লকডাউনের সফলতা ধূলিসাৎ হয়ে যাচ্ছে বলে মনে করছেন সুশীল সমাজ।

সচেতন নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি আইনজীবি আবু জাফর বলেন, করোনা সংক্রমণ রুখতে এলাকা ভিত্তিক বাজার ব্যবস্থা চালু করা দরকার। সপ্তাহের একেকটা দিন একেক এলাকায় দোকান, হাট-বাজার খোলা রাখা হলে মানুষের ভীড় কমবে। সংক্রমণও একটি এলাকা থেকে আরেকটি এলাকায় ছড়ানো অনেকাংশে রোধ হবে। এছাড়াও স্বল্প সময় বেধে দেয়ায় ভীড়ও বাড়ছে। উদ্যোগ নেয়া না হওয়ায় সপ্তাহের খুলে দেয়া দু’দিনেই লকডাউনের অন্যদিনের অর্জনগুলো মুহুর্তে ধূলিসাৎ হয়ে যাচ্ছে। বিভিন্ন এলাকার মানুষজন একসঙ্গে হাট-বাজারে মিলিত হওয়ার ফলে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে একটি জায়গা থেকে আরেকটি স্থানে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, প্রশাসনের নির্দেশনা বাস্তবায়নে পুলিশ মাঠে কাজ করছে। এলাকা ভিত্তিক বাজার ব্যবস্থাপনা চালু করা আর নিয়ন্ত্রন করাটি অনেক কঠিন হবে। এত জনবল আর সার্বক্ষনিক বাজার মনিটরিং করাও সহজ নয়।

বান্দরবানের সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা বলেন, আক্রান্তের সংখ্যা শতক ছাড়িয়ে ১১১ জনে দাড়িয়েছে। একশ চৌদ্দটি নমুনা পরীক্ষায় বুধবার’রাতে ১৭ জন শনাক্ত হয়েছ বান্দরবান। এতেই বোঝা যাচ্ছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ কতটা ছড়িয়ে পড়েছে। নতুন শনাক্তের মধ্যে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষী পদ দাস, তার স্ত্রী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি, কন্যা, মেম্বার পাড়া বাসিন্দার জেলা প্রশাসন ও রোয়াংছড়ি ইউএনও অফিসের দুজন স্টাফ, লামা পৌর আওয়ামীগের সভাপতি’সহ সচেতন মহলের সংখ্যাই বেশি।

প্রসঙ্গত: করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ১০ জুন বান্দরবান পৌরসভা, সদর ও রুমা উপজেলা তিনটি এলাকা’কে রেড জোন ঘোষনা করে লকডাউন করেছে প্রশাসন।

মতামত দিন