করোনার ব্যতিক্রমী সময়ে তিন তারকার ইসলাম গ্রহণ 

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে ঘরবন্দী হয়েছেন শোবিজের তারকারাও। তাদের অনেকেই অবসাদে ভুগছেন। তবে তাদের মধ্যে ব্যতিক্রম ছিলেন তিনজন তারকা। যারা এই সময়ে ইসলাম ধর্ম বিষয়ে জ্ঞান লাভ করেছেন এবং ইসলামে ধর্ম গ্রহণ করেছেন।

এই তিন তারকা হলেন- কেনিয়ার জনপ্রিয় রেডিও উপস্থাপক, উদ্যোক্তা ও মডেল তানাশা দোনা বারবিয়ারি অকেচ, অস্ট্রিয়ার জনপ্রিয় রেসলিং তারকা উইলহেলম এবং জ্যামাইকার নামকরা নৃত্যশিল্পী লিসা মার্সেদেজ।

জানা গেছে, লকডাউন চলাকালে গত এপ্রিলে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন কেনিয়ান মডেল তানাশা দোনা। মুসলিম হয়ে নিজের নাম রাখেন আয়েশা। গত ২৫ এপ্রিল ইসলাম গ্রহণের বিষয়টি প্রকাশ করেন এবং সেদিনই জীবনের প্রথম রোযা রাখেন তানাশা।

ঘরবন্দী সময়ে ইসলাম নিয়ে পড়াশোনা করে অভিভূত হন অস্ট্রিয়ার জনপ্রিয় রেসলার উইলহেলম। গত ১৬ এপ্রিল ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন তিনি। সেদিন কালেমা পাঠ করে তার ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন।

ইসলাম গ্রহণ সম্পর্কে তার ইনস্টাগ্রাম পোস্টে বলেন, করোনার সঙ্কট আমাকে আমার বিশ্বাস খুঁজে পেতে সাহায্য করেছে। ইসলাম বহু বছর ধরেই আমার মনোজগতের দখলে ছিল। যখনই আমার কঠিন সময় ছিল তখনই ইসলামিক বিশ্বাস আমাকে প্রয়োজনীয় শক্তি দিয়েছে। আমার ধর্মবিশ্বাস এখন যথেষ্ট শক্তিশালী। আমি আমার প্রকৃত সত্ত¡াকে চিনতে পেরেছি। গর্বের সঙ্গে কালেমা পাঠ করতে পেরেছি। হ্যাঁ, এখন থেকে আমি একজন মুসলিম।

আরেকজন হলেন লিসা মার্সেদেজ। তিনি ব্রিটিশ জ্যামাইকার একজন প্রসিদ্ধ নৃত্যশিল্পী। ইসলাম গ্রহণের দুই মাস পর গত মাসের ৩ তারিখে শাহাদা নামে একটি সঙ্গীত ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করে তার ইসলাম গ্রহণের বিষয়টি প্রকাশ করেন। লিসার জন্ম জ্যামাইকার কিংস্টন শহরে। নিজের ইসলাম গ্রহণের ব্যাপারে তিনি বলেন, আমি একজন নৃত্যশিল্পী। আগে খোলামেলা পোশাক পরতাম। এখন যেখানে সম্ভব হয় স্কার্ফ পরার চেষ্টা করি। নিজেকে আগের তুলনায় আরো বেশি ঢেকে রাখি। ওয়েবসাইট।

মতামত দিন