বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে ব্রয়লারের দোকান থেকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ভস্মীভূত ঘরবাড়ি দোকানপাট, ক্ষয়ক্ষতি ৫ কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: বান্দরবান: করোনা ভাইরাসের দুর্যোগ মহামারীতে পুড়ে ছাই হয়ে গেল বান্দরবান রোয়াংছড়ি উপজেলার ঘরবাড়ি ও দোকানপাট। হঠাৎ মধ্যরাতে বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলায় বাজারে ব্রয়লারের দোকান থেকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৭টি গুদাম সহ প্রায় ৭৩টি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান ও বসতঘর পুড়ে গেছে।

শুক্রবার মধ্যে রাত সাড়ে ১২টা দিকে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। তবে ঘটনার কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মধ্যে রাতে রাজারে দেলোয়ারের দোকান থেকে হঠাৎ করে আগুনের লেলিহান শিখা দেখতে পাই এলাকাবাসী। সেই আগুন মুহূর্তেই চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে পাশে থাকা দোকান ও বসতঘর পুড়ে যায়। পরে দমকল বাহিনী ও স্থানীয়রা মিলে প্রায় ৫ ঘন্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। প্রাথমিকভাবে আগুনে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ আনুমানিক প্রায় ৫ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে মনে করছেন ক্ষতিগ্রস্থরা।

ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা জানান, করোনা সতকর্তায় দেশ জুড়ে লকডাউনের মাঝে তেমন করে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করতে পারেনি তাঁরা। তারই মধ্যে হঠাৎ করে বাজারের অগ্নিকান্ডে পুড়ে সর্বশান্ত হয়ে পড়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রোয়াংছড়ি ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট অফিসার মংশৈনু মারমা জানান, বাজারের দেলোয়ারের ব্রয়লারের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হ‌য়ে‌ছে ব‌লে আমরা জান‌তে পে‌রে‌ছি। আগুনে ছোট বড় ৭৩টি দোকান এবং আশপা‌শের বসতঘর আগুনে পুড়ে গেছে।

বর্তমানে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে বান্দরবান জেলা পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও রেড ক্রিসেন্ট এর পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এবং সকল প্রশাসনের পক্ষ থেকে আন্তরিক সমবেদনা জানিয়েছে ।

উল্লেখ্য যে বান্দরবানের থানছি উপজেলায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের পর করোনা ভাইরাসের এই দুর্যোগপূর্ণ মুহূর্তে দ্বিতীয়বারের মতো বান্দরবানের রুমা উপজেলায় অগ্নিকাণ্ডে আবার সকল কিছু বশীভূত হলো।

 

মতামত দিন