শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ ও সংগঠনের মাঝে চারা বিতরণ করলেন “লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি”

মো. এরশাদ আলম, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম):

“এসো সবুজ লোহাগাড়া গড়ি” এই স্লোগানে লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি-চট্টগ্রাম এর উদ্যোগে দক্ষিণ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ ও সামাজিক সংগঠনের মাঝে প্রায় ১০ হাজার ফলজ, ঔষধি ও বনজ বৃক্ষের চারা বিতরণ শুরু হয়েছে।
এসময় উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লোহাগাড়া উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান এম ইব্রাহিম কবির, বিশেষ অতিথি ছিলেন নিসচা লোহাগাড়া শাখার আহবায়ক ও ব্যাংকার মুজাহিদ হোসাইন ও তরুণ সমাজকর্মী রিয়াদ হোসেন রুবেল, সভাপতিত্ব করেন “লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি- চট্টগ্রাম” এর সভাপতি ও তরুণ উদ্যোক্তা এম এ ছিদ্দিক ও সংগঠনের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান এম ইব্রাহিম কবির বলেন, জলবায়ু ও মাটির গুনে প্রাচীন কাল থেকেই বাংলাদেশ সবুজের সমারহের জন্য সুপ্রসিদ্ধ। পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষার্থে একটি দেশের আয়াতনের শতকরা ২৫ ভাগ এলাকায় বনভূমী থাকা একান্ত প্রয়োজন রয়েছে বলে বিশেজ্ঞগণ মনে করেন । কিন্তু বাংলাদেশের আয়তনের তুলনায় বনাচ্ছাদিত এলাকার পরিমান অনেক কম। তাই সবাইকে বেশি বেশি গাছ রোপণ করতে হবে। পরিবেশকে জীবনবান্ধব করে তোলার ক্ষেত্রে গাছ লাগানোর কোন বিকল্প নেই।

তরুণ উদ্যোক্তা ও সংগঠনের সভাপতি এম এ ছিদ্দিক বলেন, প্রাকৃতিক পরিবেশ সংরক্ষণ বনজ দ্রব্যের চাহিদা পূরণ ও পরিকল্পিত ভাবে পর্যাপ্ত গাছ লাগানো একান্ত প্রয়োজন। গণ পর্যায়ে বৃক্ষ রোপন কেবল পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষার্থে এবং ফলমূল ও বনজ দ্রব্যের দেশকে স্বনির্ভর করে তুলতে সাহায্য করবেনা বরং ব্যক্তি পরিবারের আর্থিক স্বাচ্ছন্দ বিধানে অনুকূল ভুমিকা পালন করে দেশের সার্বিক উন্নয়নে অবদান রাখবে। তাই লোহাগাড়া উপজেলাকে সবুজায়ন করতে ও তরুণ প্রজন্মকে দেশ প্রেমে উৎসাহিত করতে “লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি-চট্টগ্রাম” এই কার্যক্রম শুরু করেছে।
তিনি আরো বলেন, সংগঠনের পক্ষ থেকে করোনা ভাইরাসে বা শ্বাসরোগে আক্রান্ত রোগীদেরকে বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ করা হচ্ছে এবং আগামীতেও বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড অব্যাহত থাকবে।

মতামত দিন