দক্ষিন আফ্রিকার বতসোয়ানায় এ্যানথ্রাক্সে ৩৫৬ হাতির মৃত্যু

শওকত বিন আশরাফ।।দক্ষিন আফ্রিকা থেকে।।

দক্ষিন আফ্রিকার দেশ বতসোয়ানার একটি বন্য প্রাণী সংরক্ষণ কেন্দ্রে ৩৫৬টি হাতির আকস্মিক মৃত্যু হয়েছে।
বটসওয়ানার ঐতিহাসিক ওকাভাঙ্গো ডেল্টা পার্কে গত দুই মাসে এই হাতির গুলির মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির বন্যপ্রানী সংরক্ষণ বিভাগ।

বতসোয়ানাতে বিশ্বের বৃহত্তম হাতির জনসংখ্যা রয়েছে, যার অনুমানিক সংখ্যা প্রায় ১৩০,০০০।

আজ বৃহস্পতিবার বতসোয়ানার ওয়াইল্ড লাইফ অ্যান্ড ন্যাশনাল পার্ক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক সিরিল তাওলো আর্ন্তজাতিক ও স্হানীয় গণমাধ্যমকে বলেছেন “ওকাভাঙ্গো ডেল্টা পার্কের উত্তর অঞ্চলে৩৫৬ টি হাতির মৃত্যু হয়েছে।যার মধ্যে এখন পর্যন্ত আমরা ২৭৫ টি হাতির মৃতদেহ নিশ্চিত করেছি।তিনি বলেছিলেন যে, অ্যানথ্রাক্স রোগে গত কয়েকবছর আগে এই পার্কে হাতির মৃত্যু হয়েছিল।ধারণা করা হচ্ছে এবারও একই রোগে এসব হাতির মৃত্যু হয়েছে।আমরা আকস্মিকভাবে হাতি মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধান করছি।

তিনি আরো জানিয়েছেন,মৃত হাতির কারণ নির্নয় করতে নমুনা সংগ্রহ করে পোষ্ট মর্টেমের জন্য দক্ষিন আফ্রিকা ও কানাডার বিশেষায়িত গবেষণাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

দেশটির জীববিজ্ঞানী কিথ লিন্ডস গণমাধ্যমকে বলেছেন,হাতি গুলি মৃত্যুর প্রকৃত কারণ এখনো জানা না গেলেও আকস্মিকভাবে এত গুলো হাতি মারা যাওয়ার কারণ এ্যানথ্রাসক্স ভাইরাসে হতে পারে।
তিনি বলেছেন,১৯২০ সালে ও একইভাবে এই পার্কে ৭শ হাতির মৃত্যু হয়েছিল।

মতামত দিন