পর্যায়ক্রমে আদালতের স্বাভাবিক কার্যক্রম চালু হবে-চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতিকে ভার্চুয়াল মিটিংয়ে আইনমন্ত্রীর আশ্বাস

নিজস্ব প্রতিবেদক:

আদালতের স্বাভাবিক কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে চালু হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। রবিবার চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাথে এক ভার্চুয়াল মিটিংয়ে এই আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হক, এম.পি এর সাথে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সৈয়দ মোক্তার আহমদ এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এ.এইচ.এম. জিয়াউদ্দিন এর পরিচালনায় ভার্চুয়াল মিটিং অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত ভার্চুয়াল মিটিংয়ে আরোও অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সম্মানিত সদস্য ও সমিতির সাবেক সভাপতি মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী, সাবেক বার কাউন্সিল সদস্য ও সমিতির সাবেক সভাপতি মো. ইব্রাহীম হোসেন চৌধুরী বাবুল, সমিতির সাবেক সভাপতি যথাক্রমে একে.এম. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, মো. মুজিবুল হক, রতন কুমার রায়, শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, এ.এস.এম. বদরুল আনোয়ার, সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে হুমায়ন আক্তার মোস্তাক, মো. আখতার কবির চৌধুরী, অশোক কুমার দাশ।
বৈঠকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে সীমিত পরিসরে আদালত খুলে দেওয়ার বিষয়ে নেতৃবৃন্দরা আালোচনা করেন। এছাড়া সি.আর মামলা, ফৌজদারী কার্যবিধির ১৪৪ ও ১৪৫ ধারার মামলা, এসি ল্যান্ডের নামজারি আদেশের বিরুদ্ধে মামলা, নিষেধাজ্ঞা শুনানী, হাজিরা, সমন এতদসংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা হয়। ভার্চুয়ালি মামলা পরিচালনা করতে গিয়ে বিজ্ঞ আইনজীবীদের নানাবিধ সমস্যায় পড়তে হয় উক্ত বিষয়টি মাননীয় আইন মন্ত্রীর নিকট উপস্থাপন করা হয়।
বৈঠক শেষে মাননীয় আইন মন্ত্রী বিজ্ঞ আইনজীবীদের অনুভূতির সাথে একমত হয়ে বলেন, আদালত কর্তৃক তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে ভার্চুয়াল কোর্ট চালু হয়েছে চলমান সংকট থেকে উত্তরণের জন্য। যেটি সংকটকালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। প্রকৃত অর্থে ভার্চুয়াল কোর্ট স্বাভাবিক কোর্টের বিকল্প হতে পারে না। পর্যায়ক্রমে সব কিছু খুলে দেয়া হবে এবং নিয়মিত কোর্টের দিকে অগ্রসর হলে এটি পূর্ণাঙ্গতা পাবে। খুব শীঘ্রই সি.আর মামলা ফাইলিং ও হাজিরা কার্যক্রম এবং ফৌজদারী কার্যবিধির ১৪৪ ও ১৪৫ ধারার মামলা চালু হওয়ার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।
বৈঠকে চট্টগ্রামে করোনার চিকিৎসা সেবা সংক্রান্ত বিষয়েও আলোচনা হয়। চট্টগ্রামের হাসপাতালগুলোতে পর্যাপ্ত সিট, আইসিইউ সংখ্যা বৃদ্ধি, হাইপ্লো অক্সিজেনের ব্যবস্থাসহ কিভাবে চিকিৎসা সেবা বৃদ্ধি করা যায় সে বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করবেন।
বৈঠকে চলমান সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা ফলপ্রসু হওয়ায় চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি কর্তৃক কোন কর্মসূচি নাই।

মতামত দিন