রাঙামাটিতে পরকীয়া প্রেম অতঃপর প্রেমিকের ছুড়িকাঘাতে আহত প্রবাসীর স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি ||
রাঙামাটিতে পরকীয়া প্রেমের জেরে ছুরিকাঘাতে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যার চেষ্টা করেছে তবলছড়ি ওয়াপদা কলোনির বাসিন্দা ২ কন্যা সন্তানের জনক মো. মনির হোসেন।
ভিকটিমের পিতা কাছ থেকে জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যার পর প্রবাসীর স্ত্রী বাড়ি ফিরছিলেন। ইতিমধ্যে চারদিক অন্ধকার হয়ে পরায়, পেছন তাকে অনুসরণ করে আসা মো. মনির হোসেন তাকে পেছন থেকে জাপটে ধরে ছুড়ি দেখিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দিতে থাকে। প্রাণ বাঁচাতে সে যখন দৌড়ে বাড়িতে চলে আসছিলো তখনই ছুড়ি দিয়ে আঘাত করে বসে মনির এতে ভিকটিমের পেটের ডানপাশ ও বামহাত যখম হয়।
ভিকটিমের চিৎকার শুনে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে মনির পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসারর জন্য রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।
চিকিৎসা গ্রহণের পর পেটে ৬ সেলাই ও ব্যান্ডেজ করা হাত নিয়েই আইনি সহায়তার জন্য রাঙামাটি কোতোয়ালি থানায় স্বরণাপন্ন হয় মেয়ের পরিবার।
এবিষয়ে রাঙামাটি কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ জানিয়েছেন অভিযোগ পাওয়ার পর দুই পরিবারে সম্মতিতে বিষয়টি সমাধান করা হয়েছে।
এদিকে মো. মনির হোসেনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে সে বলে, কাল সকালে কথা বলবো বলে কল কেটে দেয় ও পরবর্তীতে প্রতিবেদকের নাম্বারটি ব্ল্যাক লিস্টে ফেলে দেয়
উল্লেখ্য- প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে দেড় বছর ধরে ২ কন্যা সন্তানের জনক মো. মনির হোসেনের পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক। কিন্তু পারিবারিকভাবে তাদের এই সম্পর্কের কারণে সমস্যা হওয়ায় মাস খানেক আগে দুই পরিবারের বয়োজ্যেষ্ঠরা বসে সিদ্ধান্ত নেয়। এখন কেউ কেউর সাথে যোগাযোগ রাখবেনা। কিন্তু ১ মাস না পেরুতেই ঘটল এই ঘটনা।

মতামত দিন