মা’কে ঘর থেকে বের করে দিইনাই, আমরা ষড়ষন্ত্রের শিকার

মো. এরশাদ আলম, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) ||

আমরা আমাদের মা’কে ঘর থেকে বের করে দিই নি। আমরা ষড়ষন্ত্রের শিকার।আমাদের মাকে কোন ধরণের মারধর কিংবা নির্যাতন করিনাই। বরণ প্রতিপক্ষরা আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে ষড়ষন্ত্রের মাধ্যমে উঠে পড়ে লেগেছে। আপনাদের মাধ্যমে আমরা সংশ্লিষ্ঠ প্রশাসনের কাছে প্রতিকার চাই।
১৪আগস্ট সকাল সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রামের উপজেলার বটতলী মোটর স্টেশনস্হ ইনসাফ রেস্তোরাঁয় উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নের পূর্ব কলাউজান বণিক পাড়ার তপন ধর ও রুপনা ধর গং কর্তৃক বসতবাড়ি অবৈধভাবে দখল করার অপচেষ্টা , চাঁদা দাবী , মিথ্যা – ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ এবং মিথ্যা মামলার বিরুদ্ধে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবী করেছেন রাণী বালা ধরের দু`ছেলে সুকুমার ধর ও নারায়ণ ধর।
সাংবাদিক সম্মেলনে সুকুমার ধরের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন তার পুত্র রাসেল ধর। লিখিত বক্তব্যে রাসেল ধর জানান, উপজেলার পূর্ব কলাউজান মৌজার আর , এস ৬৭৯ , ৫৭১ নং খতিয়ানের আর , এস ৩৫৭,৩৬০ দাগের তৎ বি , এস ১৪২৮ , ১৪২৩ নং খতিয়ানের ৬১৫ , ৬১৬ দাগের ৮ শতক জায়গা বিগত ৩০/০৫/১৯৮৪ ইং তারিখে রেজিঃকৃত ২৩৩৮ নং কবলা মুলে কালি পদ হইতে হাজী জামাল উদ্দীন প্রকাশ সরু মিয়া খরিদ করে ভােগ দখলে থাকিয়া উক্ত জামাল উদ্দীন প্রকাশ সরু মিয়া বিগত ১০/ ১১/ ২০০৮ ইং তারিখে রেজিঃকৃত ৩১৪৪ নং এওয়াজ নামা মুলে তপন ধরকে উক্ত ৮ শতক জায়গা এওয়াজ মতে হস্তান্তর করিয়া দখলে দেন।
লিখিত বক্তব্যে আরও জানান, তপন ধর ও রুপনা ধর গং রেখা বড়ুয়া ও বিলাশ ধরসহ অজ্ঞাত ১০/১২ জন দুষ্কৃতিকারী চক্র চাঁদা দাবি , জীবন নাশের হুমকি , মিথ্যা মামলাসহ প্রকাশ্যে অশ্লীল ভাষায় গালি গালাজ করে। তপন ধরের নেতৃত্বে দলবল মিলে আমাদেরকে বসত বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার জন্য লাঠিসােটা , দা চুরি , লােহার রড হাতে নিয়ে প্রকাশ্যে হুমকি দিচ্ছে। তপন ধর ও কুপন ধর আমাকে ও আমার পরিবারবর্গকে হয়রানি করার জন্য থানায় আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। আমরা পরবর্তীতে আদালতে আত্মসর্মপণ করলে মহামান্য আদালত আমাদের জামিন মঞ্জুর করেন।গত কিছুদিন পুর্বে আমাদের কে জড়িয়ে কয়েকটি অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয় যেসব নিউজের কোন ভিত্তি নেই। সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যম ফেইসজবুকে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করায় মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানান তারা। সংবাদ সম্মেলনে সংশ্লিষ্ঠ প্রশাসনের কাছে প্রতিকার চেয়ে সুষ্ট তদন্তপুর্বক বিচার কামনা করেছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।
সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্হিত ছিলেন রাণী বালা ধরের দু`ছেলে সুকুমার ধর ও নারায়ণ ধর।

মতামত দিন