করোনায় মারা গেলেন বাংলাদেশের বন্ধু প্রণব মুখার্জি

করোনার সাথে লড়াই করে শেষমেশ পরাজয় বরণ করলেন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি। দেশবরেণ্য এ রাজনীতিকের বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর৷ সোমবার( ৩১ আগস্ট) দিল্লির সেনা হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রণব৷

এর আগে গেল ৯ আগস্ট বাথরুমে পড়ে গিয়ে মাথায় ও হাতে জখম হলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় সাবেক এই রাষ্ট্রপতিকে৷ সেখানে চিকিৎসকরা অপারেশনের সিদ্ধান্ত নেন৷ অপারেশনের আগে করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ রিপোর্ট আসে৷

দিল্লির সেনা হাসপাতালে প্রণব মুখার্জীর অস্ত্রোপচার শেষে রাতেই তাঁকে ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রাখা হয়৷ ১০ আগস্ট হাসপাতালে ভর্তির আগেও প্রণব মুখার্জী নিজেই টুইট করে জানান, তাঁর করোনা পজিটিভ৷

এনডিটিভি জানায়, ১১ আগস্ট থেকে অবস্থার অবনতি হতে থাকে৷ রাতে হাসপাতাল বুলেটিনে জানায়, প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটনক৷

করোনার কারণে প্রথমে তাঁর ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হলেও গেল সপ্তাহে কিডনিতেও প্রভাব ফেলে। এরপর থেকে তাঁর অবস্থার আরও অবনতি হতে থাকে।

২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ভারতের রাষ্ট্রপতি ছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ এসময়ে বাংলাদেশ সরকার ও বাংলাদেশের জনগণের প্রতি অকৃত্রিম বন্ধুত্বের পরিচয় দেন তিনি। ৫০ বছরেরও বেশি সময় সক্রিয় রাজনীতিতে থাকা প্রণব মুখোপাধ্যায়কে ২০১৯ সালে ভারতের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান ভারত রত্নে ভূষিত করা হয়৷

মতামত দিন