শালিশে ঠকে শালিশদারকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি,লক্ষ্মীপুর:
লক্ষ্মীপুরে সালিশে অমীমাংসিত ঘটনা মীমাংসা করে প্রতিপক্ষের মিথ্যা মামলায় ফেসে গেছেন সালিশদার নিজেই

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, সদর উপজেলার২০ নং চররমনী ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের নেতা শমসের আলী হাওলাদারের ছেলে আম্মদআলীকে একই এলাকার শামসুল হক হাজী বাড়ির বাহার উদ্দিনের স্ত্রী শিল্পী আক্তার তার জমিজমা বিষয়ক ঝামেলায় দায়ের করা মামলায় আসামি করেছেন। মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, চররমনী ১নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য প্রার্থী ও একই ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি।

আহমেদ আলী এলাকায় বিভিন্ন জনের উপকারার্থে সালিশ দরবার করে অমীমাংসিত ঘটনা আপোষ মীমাংসা করে দেন। এতে করে উভয়পক্ষের শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় থাকে।

মামলার বাদীনি শিল্পী আক্তারের জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিষ্পত্তি কালে গত শনিবার অন্য একাধিক সালিশদার এর সাথে আহমদ আলীও ছিলেন। কিন্তু অন্য সব সালিশদারগনকে মামলায় না জড়িয়ে সম্পন্ন উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সমাজে হেয় করার হীন ষড়যন্ত্রে আহমদ আলীকে মামলায় ৩নং আসামী করা হয়।

আহমদ আলী বলেন -শিল্পী আক্তারের জমি-জমা বিষয়ক ঝামেলা নিয়ে আমরা আপোষ মীমাংসা করার জন্য এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বসি। সেখানে দীর্ঘদিনের ঝামেলা একপর্যায়ে সমন্বিতভাবে আপস করা হয়। কিন্তু কেন, কি উদ্দেশ্যে শিল্পী আক্তার আমাকে জড়িয়ে মামলা দিয়েছে ;তা আমার বোধগম্য নয়। আমাকে হয়রানি করার জন্যই একটা চক্র কাজ করছে।

এ বিষয়ে শিল্পী আক্তারের মোবাইলে একাধিক বার কল দিয়েও না পাওয়ায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মহসিন বলেন- আমরা মামলা পেয়েছি, এজাহারে উল্লেখিত ঘটনা তদন্ত করছি। যাচাই-বাছাই করে বিস্তারিত বলা যাবে।

মতামত দিন