আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসার পরে কাউকে পাহাড় ছেড়ে যেতে হয়নি …. পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, নিজস্ব সংবাদদাতা, লামা:
পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, তিন যুগ ধরে অশান্ত পার্বত্য চট্টগ্রামকে শান্তিচুক্তির মাধ্যমে সর্বশ্রেণী মানুষের বসবাসের উপযোগী করেছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ উন্নয়ন করে আর অন্যান্যরা শুধু সমালোচনা করেন। দুষ্ঠ লোকের ভালো বুদ্ধি থাকে না। আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসার পরে কাউকে পাহাড় ছেড়ে যেতে হয়নি। উন্নয়নের বিরোধীতা তারাই করে যারা উন্নয়ন করতে পারেনা। বিরোধীতা না করে পরামর্শ দেন, গ্রহণ করব। বান্দরবানের লামা উপজেলার আজিজনগর ইউনিয়নের মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) দুপুরে চাম্বী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের ভিত্তি প্রস্তর ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে এইসব কথা বলেন পার্বত্য মন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন, লামা উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আনা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া হবে। দুর্গম এলাকায়, যেখানে বিদ্যুৎ নেয়া সম্ভব নয় সেখানে সৌর বিদ্যুতের (সোলার) মাধামে বিদ্যুতায়ন করা হবে। একটি ঘরও অন্ধকারে থাকবে না। পাশাপাশি সবাইকে শিক্ষা প্রসারে কাজ করতে অনুরোধ করে তিনি বলেন, আজ পাহাড়ে গরীব অসহায় ও পিছিয়ে পড়া বাবা/মায়ের ঘরেও বিসিএস ক্যাডার সন্তানের জন্ম হয়েছে। এই অহংকার আমাদের সকলের। কিন্তু ১৩/১৪ বছরের মেয়েদের বাল্য বিবাহের কারণে মেয়েরা শিক্ষা থেকে পিছিয়ে পড়ছে। নারী ক্ষমতায়ন না হলে দেশকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব নয়।

পার্বত্য মন্ত্রী আজিজনগর ইউনিয়নে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতায় ১৩টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর ও উদ্বোধন করেন। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের প্রকল্প সমূহ হল, বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রাবাস উদ্বোধন, চিউনি পাড়া ক্যাম্প বাজার মসজিদ উদ্বোধন, আজিজনগর দূর্গা মন্দিরের নাট মন্দির উদ্বোধন, আজিজনগর চাম্বী কলেজের উদ্বোধন, আজিজনগর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সীমানা প্রাচীর উদ্বোধন, আজিজনগর ইউনিয়ন পরিষদ হতে তেলুনিয়া পাড়া পর্যন্ত রাস্তার উদ্বোধন, আজিজনগর হেডম্যান পাড়া যুবক-যুবতি ক্লাব ঘর উদ্বোধন, আনন্দ কারবারী পাড়া গীর্জা উদ্বোধন। বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের অর্থায়নে বাস্তবায়িত প্রকল্প গুলো হল, আজিজনগর চাম্বি হেডম্যান পাড়া সেবাঘর উদ্বোধন, চাম্বি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সিঁড়ি উদ্বোধন। স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর এর প্রকল্প হল, ২নং চাম্বি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্রেণীকক্ষ নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর, ইসলামপুর বি আলম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্রেণীকক্ষ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের অর্থায়নে আজিজনগর চাম্বি মফিজ বাজারে গ্রোথ সেন্টার নির্মাণ।

আজিজনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ জসিম উদ্দিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশেসিং এমপি। বিশেষ অতিথি হিসাবে আরো উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে উন্নয়ন বোর্ডের সদস্য (বাস্তবায়ন) মোঃ হারুনুর রশিদ (সরকারের উপ-সচিব), বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের প্রধান মূখ্য কর্মকর্তা এটিএম কাউচার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ শফিউল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আসাদুজ্জামান, আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ, লামা উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাশ, ফাতেমা পারুল, লামা পৌরসভার মেয়র মোঃ জহিরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রেজা রশিদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বাথোয়াইচিং মার্মা সহ প্রমূখ।

এছাড়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জাহেদ উদ্দিন, মিল্কী রাণী দাশ, ইউপি চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন, ছাচিং প্রু মার্মা, মোঃ জালাল উদ্দিন, আজিজনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ উল্লাহ আজম খান, সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম কানন সহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেত্রীবৃন্দের উপস্থিতিতে জনসভাস্থল জনসমুদ্রে পরিণত হয়।

মতামত দিন