যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে এলিটের সদস্যপদ নিয়ে আওয়ামী লীগের ক্ষোভ

মিরসরাই প্রতিনিধি ||

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়া নিয়াজ মোর্শেদ এলিটের সদস্যপদ বাতিলের দাবী করেছে মিরসরাই উপজেলা আওয়ামী লীগ।

রবিবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যার পর দলটির সভাপতি জাহাঙ্গীর কবীর চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক একেএম জাহাঙ্গীর ভূঁইয়া স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবাদলিপি মিরসরাই প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দকে হস্তান্তর করা হয়। এসময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন দলটির উপজেলা কমিটির যুগ্ম সম্পাদক এম সাইফুল্লাহ দিদার ও দপ্তর সম্পাদক সৈয়দ আলতাফ হোসেন।

এতে বলা হয়, গত ৭ নভেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল স্বাক্ষরিত যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির সদস্য তালিকায় নিয়াজ মোর্শেদ এলিট নামের এক ব্যক্তির নাম অর্ন্তভূক্ত করা হয়। যা দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্থানীয় আওয়ামী লীগের দৃষ্টিগোচর হয়। যার ফলে মিরসরাই আওয়ামী রাজনীতিতে ক্ষোভ ও হতাশার জন্ম হয়েছে। এছাড়া স্থানীয় রাজনীতিতে এক ধরণের বিশৃঙ্খলাও দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ দাবী করেছে, নিয়াজ মোর্শেদ এলিট বিএনপি অধ্যুষিত পরিবারের সন্তান। তার বাবা বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় ভাইস প্রেসিডেন্ট। এছাড়া সদস্য যুবলীগের সদস্য পদে পদায়ন হওয়া এলিট কোন কালে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ কিংবা কৃষক লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিল না।

এছাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিবাদলিপিতে চট্টগ্রাম নগরীতে এলিটের বিরুদ্ধে বন্দরকেন্দ্রিক সিন্ডিকেট বাণিজ্য, অবৈধ মদের বার চালানো এবং জমি দখলের অভিযোগ রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। তারা সহসা আওয়ামী যুবলীগের সদস্যপদ থেকে এলিটের নাম প্রত্যাহারের দাবিও জানান। প্রসঙ্গত, নিয়াজ মোর্শেদ এলিটের বাাড়ি মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া ইউনিয়নের মসজিদিয়া গ্রামে। তিনি বড়তাকিয়া মোটরস লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

মতামত দিন