এবার মিরসরাই যুবলীগের দাবী-নিজের অপকর্ম ঢাকতে সরকারদলীয় পদবী ছিনতাই করেছে এলিট

মিরসরাই প্রতিনিধি:
বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়া নিয়াজ মোর্শেদ এলিটের সদস্যপদ বাতিলের দাবী ক্রমশ জোরালো হচ্ছে। এবার এলিটের সদস্যপদ প্রাপ্তির প্রতিবাদ জানােিয়ছে মিরসরাই উপজেলা যুবলীগ। তারা দাবী করছে ‘এলিট রাজাকারের নাতি’ (দৌহিত্র)। সে নিজের অপকর্ম ডাকতে সরকারী দলের পদবী ছিনতাই করছে।

সোমবার (১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যার পর মিরসরাই যুবলীগের আহবায়ক নুরুল মোস্তফা মানিক, যুগ্ম আহবায়ক মোশাররফ হোসেন মান্না, নুরুল আবছার সেলিম, মাহফুজ উল আলম ও কামরুল হায়দার চৌধুরী স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবাদলিপি প্রেস বিজ্ঞপ্তি আকারে মিরসরাই প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের হাতে তুলে দেন। এর আগে গত রবিবার (১৫ নভেম্বর) প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে প্রথম প্রতিবাদ জানায় উপজেলা আওয়ামী লীগ।

স্থানীয় যুবলীগ অভিযোগ করে, গত ৭ নভেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল স্বাক্ষরিত যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির (ক্রমিক ১৯) সদস্য তালিকায় নিয়াজ মোর্শেদ এলিটকে অর্ন্তভূক্ত করা হয়। যার ফলে মিরসরাই তথা চট্টগ্রাম তৃণমূল যুবলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ ও হতাশার জন্ম দিয়েছে।

স্থানীয় যুবলীগ দাবী করেছে, নিয়াজ মোর্শেদ এলিট যুবলীগের কেউ নয়, রাজনৈতিকভাবে তাকে আমরা চিনিও না। বরং তার পরিবার এলাকার বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত বলে ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে। তার বাবা মনিরুল ইসলাম ইউসুপ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় ভাইস প্রেসিডেন্ট। এলিট একজন রাজাকার দৌহিত্র। তার নানা চট্টগ্রামের সীতাকু- উপজেলার বাড়বকু- ইউনিয়নের নড়ালিয়া গ্রামের রাজাকার কমান্ডার হাফেজ আবুল খায়ের। এলিট একজন দুর্নীতিবাজ ও ভূমিদস্যু। নিজের অপকর্ম জায়েজ করতে ক্ষমতাসীন দলের পদ ভাগানোর চেষ্টা করছে।

মিরসরাই উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মোস্তফা মানিক স্থানীয় সাংবাদিকদের আরো জনান, আমরা বিভিন্ন সময় দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমের সুবাদে জেনেছি, এলিট নামের ওই ব্যক্তির প্রধান কাজ হচ্ছে রাজনীতিকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা। এর মাধ্যমে চট্টগ্রাম বন্দরে টেন্ডার বাণিজ্য করে সে কোটিপতিও বনে গেছে।
ওইদিন দেয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মিরসরাই যুবলীগ নেতৃবৃন্দ সহসা আওয়ামী যুবলীগের সদস্যপদ থেকে এলিটের নাম প্রত্যাহারের দাবি জানান। অন্যথায় এ নিয়ে তারা প্রতিবাদ কর্মসূচি দেয়ার হুমকি দেন।

প্রসঙ্গত, নিয়াজ মোর্শেদ এলিটের বাাড়ি মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া ইউনিয়নের মসজিদিয়া গ্রামে। তিনি বড়তাকিয়া মোটরস লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

মতামত দিন