বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ভাল খেলে হেরেছে পেকুয়া, সেমিফাইনালে সদর উপজেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কক্সবাজার পৌরসভা আয়োজিত বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের তৃতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হয় পেকুয়া ও সদর উপজেলা উপজেলা। তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ খেলায় রাইজিং দল পেকুয়াকে ১—০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে যাওয়ার গৌরব অর্জন করেছে সদর উপজেলা।
রবিবার (১৭ জানুয়ারি) বিকালে কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে শুরু থেকে ভাল খেলেছে পেকুয়া। তবে মাঠজুড়ে আধিপত্য বিস্তার করে সদর উপজেলা। খেলার ৫ মিনিটের মাথায় নিশ্চিত গোলের সুযোগ মিস করে সদরের অধিনায়ক ১০ নং জার্সিধারী আবু হানিফ। এসময় তার তীব্র শট তালুবন্দি করে পেকুয়ার গোলরক্ষক কুতুব উদ্দিন। এরপর ম্যাচের ৩০ ও ৩৫ মিনিটে আরও দুটি গোলের সুযোগ হাতছাড়া হয় সদর উপজেলা। তাদের অতিথি খেলোয়াড় নাইজেরিয়ান সিভ এর দারুণ গোলের শট সেভ করে দলকে বিপদমুক্ত করে পেকুয়ার গোলরক্ষক কুতুব। ৩৮ মিনিটে ঘটে ম্যাচের মূল টার্নিং পয়েন্ট। সদর উপজেলার ফরোয়ার্ড হানিফ ও মোস্তফা পেকুয়ার ডিবক্সে বল নিয়ে ঢুকে পড়ে। এসময় পেকুয়ার ডিফেন্ডার আরিফের হাতে লাগলে রেফারি শফিউল আলম পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেয়। তবে বল হাতে লাগেনি বলে অভিযোগ এনে রেফারির পেনাল্টির সিদ্ধান্ত ভুল অবহিত করে মাঠ ছাড়তে চায় পেকুয়ার খেলোয়াড়েরা। পরে আয়োজক কমিটির অনুরোধে মাঠে উঠে তারা। পেনাল্টিতে সদর উপজেলার অতিথি খেলোয়াড় সিভ সহজ গোল করে দলকে ১—০ গোলে এগিয়ে নেয়। দ্বিতীয়ার্ধে গোল শোধ করতে মরিয়া হয়ে উঠে পেকুয়া। কয়েকটি কাউন্টার এ্যাটাক থেকে গোলের সুযোগও মিস হয় তাদের। তবে শেষ পর্যায়ে ম্যাচে আর কোন গোল আসেনি। ফলে হারের হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় পেকুয়াকে। তবে দর্শকদের অভিমত হটফেভারিট সদর উপজেলার বিরুদ্ধে পেকুয়া কোন বিদেশী খেলোয়াড়বিহীন অনেক ভাল খেলেছে। যার উদাহরণ সদর উপজেলা খেলে কোন গোল করতে পারেনি পেকুয়ার বিরুদ্ধে।
তবে রেফারির শেষ বাঁশিতে বিজয় উল্লাসে মেতে উঠে সদর উপজেলার সমর্থকরা।
ম্যাচ সেরা হয় সদর উপজেলার ৭নং জার্সিধারী খেলোয়াড় হুমায়ুন। তাকে ক্রেস্ট তুলে দেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল ও টুর্নামেন্ট কমিটির আহবায়ক পৌরসভার প্যানেল মেয়র—২ হেলাল উদ্দিন কবির।
টেকনাফঃ ফয়সাল, ইব্রাহিম, তৈয়ব, এনাম, মকবুল, দিদার, এমেকা, জাহাঙ্গীর,
সদর উপজেলাঃ রাহুল (গোল রক্ষক), শেফায়েত, জাহেদ, হেলাল, বেনজি, হুমায়ুন, আরাফাত, আরিফ, মোস্তফা, আবু হানিফ, সিভ, জয়নাল, রুবেল, আমিন, সোহেল, জয় বড়–য়া, ম্যানেজার আমির হোসেন ও কোচ খালেদ হোসেন।
পেকুয়া উপজেলাঃ কুতুব উদ্দিন (গোল রক্ষক), ফারুক, আরিফ, আইয়ুব, রাশেদ, বাহাদুর, হাবিব, ফোরকান, আবদুল্লাহ, রাজু, রাশেদ, সালাহ উদ্দিন, শাওন, দেলোয়ার, সোহাগ, জয়নাল, রাসেল, ম্যানেজার মনিরুল ইসলাম ও কোচ নুর মোহাম্মদ।
ম্যাচ রেফারিঃ শফিউল আলম, সহকারি রেফারিঃ সিরাজুল ইসলাম, জয়নাল আবেদিন, ফোর্থ অফিসিয়াল গিয়াস উদ্দিন ও ম্যাচ কমিশনার অধ্যক্ষ জসিম উদ্দন।
সোমবার (১৮ জানুয়ারী) বিকাল ৩টায় মুখোমুখি হবে কুতুবদিয়া বনাম উখিয়া উপজেলা।

মতামত দিন