স্কুল ছাত্রীর কাপড় ধরে টানাটানি: সাতকানিয়ায় তিন কিশোর গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার: এক স্কুলছাত্রীর কাপড় ধরে টানাটানিসহ ইভটিজিংয়ের অভিযোগে সাতকানিয়ায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার উপজেলার কেঁওচিয়া ইউনিয়নের পূর্ব মাদারবাড়ি এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, বাঁশখালীর জাইল্লাখালী বাজার এলাকার মো. শহিদের ছেলে জিয়া উদ্দিন প্রকাশ আনাস (১৬), কেঁওচিয়া ইউনিয়নের নয়া পাড়া এলাকার মো. রিদুয়ান (১৭), মিরসরাই বালুকিয়া এলাকার মো. পারভেজ (১৯)।

পুলিশ জানায়, কেঁওচিয়া ইউনিয়নের নয়াপাড়া এলাকার দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে দীর্ঘদিন ধরে ইভটিজিং করে আসছিলো গ্রেফতারকৃতরা।

বৃহস্পতিবারও কোচিংয়ে যাওয়ার পথে কেরানীহাট এলাকায় কাপড় ধরে টানাটানি ও ইভটিজিং করে। ভিকটিম শিক্ষার্থীর বাবার আটক করা হয়। পরে ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, ইভটিজিংয়ের অভিযোগ তিন কিশোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

এদিকে পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ড ঘাটিয়াপাড়ায় ৭ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেয় পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাতে সপ্তম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীর বাড়িতে গিয়ে বিয়ে বন্ধ করেন থানার এসআই নজরুল ইসলাম।

এসআই নজরুল ইসলাম বলেন, সাতকানিয়া পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের ঘাটিয়াপাড়ায় এক শিক্ষার্থী জোর করে বিয়ে দেয়া হচ্ছে এমন খবরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও ওসি’র স্যারের নির্দেশে ঘটনাস্থলে গিয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

মতামত দিন