পদুয়ায় মরহুম আমানুল হক স্মৃতি শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট-এর ফাইনাল খেলা সম্পন্ন

মো. এরশাদ আলম, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম):

মাদক একেবারেই নয়, খেলাধুলায় মিলবে জয়’ মাদককে না বলি, মাঠে এসে ক্রিকেট খেলি এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া
৩নং ওয়ার্ডের সম্ভাব্য মেম্বার পদপ্রার্থী, মো.এহেছানুল হকের পৃষ্ঠপোষকতায় ছমদ আলী মুন্সির বাড়ী (সিকদার পাড়া) প্রিমিয়ার লীগের আয়োজনে মরহুম আমানুল হক স্মৃতি শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ২১’এর জমজমাট ফাইনাল খেলা সম্পন্ন হয়েছে।

(৫ ফেব্রুয়ারী) শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় ছমদ আলী মুন্সির বাড়ী (সিকদার পাড়া) মাঠ প্রাঙ্গণে জমজমাট এ শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

জমজমাট এ ফাইনাল খেলায় পদুয়া মেহের আলী মুন্সিরপাড়া ছাত্রবন্ধু ক্রিকেট একাদশের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে চ্যাম্পিয়ন হন আমিরাবাদ হাজারবিঘা সাহাবী পাড়া ক্রিকেট একাদশ।

এলাকার কৃতি সন্তান, ওয়াফা চ্যারিটি অর্গানাইজেশনের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে খেলায় উপস্থিত ছিলেন, লোহাগাড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম,পদুয়া ইউপির চেয়ারম্যান মো.জহির উদ্দিন, উপজেলা যুবলীগ নেতা নাজমুল হোসেন টিপু, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পরিষদ লোহাগাড়া শাখার সহ-সভাপতি মো. জয়নাল আবেদীন, যুবলীগ নেতা মো. আইয়ুব প্রমুখ।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট সমাজসেবক মো. জহির উদ্দিন, মাওলানা রশীদ আহমদ, ৩নং ওয়ার্ডের সম্ভাব্য মেম্বার পদপ্রার্থী মো.এহেছানুল হক, মো.আব্দুল গফ্ফার (আনোয়ার), মো. হুমায়ুন কবির, জসিম উদ্দিন, নাছিমুল গণি বাচ্চু, নোমান খালেদ, ওয়াহিদ, মোজাম্মেল হক, ছমদ আলী মুন্সির বাড়ী (সিকদার পাড়া) প্রিমিয়ার লীগের সদস্য মো. কায়েস, মো. রাফি, মো. আনছার, মো.রহমত উল্লাহ, জাসেদ সিকদার, আলী আহসান, আরমান, ইমন, রুকন, সহ এলাকার মান্যগণ্য ক্রীড়ামোদী মুরব্বীগণ।

লোহাগাড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, ক্রিকেট খেলার কারণে পৃথিবীতে বাংলাদেশের মানচিত্র অনেকটাই এগিয়ে আছে। মাদক থেকে বিরত থাকতে খেলাধুলার বিকল্প নেই। যে ঘরে একজন মাদকাসক্ত রয়েছে সেই পরিবার বুঝে মাদকের ছোবল কত কঠিন। তাই যুবসমাজকে খেলাধুলার মাধ্যমে মাদক থেকে দুরে থাকতে হবে।

তিনি আরো বলেন, দেশে জাতী ধর্ম ভেদাভেদ বিহিন জায়গা হলো ক্রীড়াঙ্গন, তাই ক্রীড়াঙ্গনকে ভালবাসুন মাদক থেকে দুরে থাকুন। লোহাগাড়ার অধিকাংশ এলাকার তরুণ এবং যুবকরা খেলাধুলায় এগিয়ে যাচ্ছে।

এত সুন্দর একটা টুর্নামেন্টের আয়োজন করার জন্য খেলার আয়োজক কমিটিকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

মতামত দিন