কোনো সমস্যার সমাধান রাতারাতি হবে না: চসিক মেয়র

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, নাগরিকের সমস্যা বা দুর্ভোগের বিষয় আমাকে অবগত করা হলে তা নিরসন ও লাঘবে তাৎক্ষণিক কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তবে কোনো সমস্যার সমাধান রাতারাতি হবে না।

শনিবার নগরের চান্দগাঁও এলাকায় সিটি করপোরেশনের মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। মেয়রের দায়িত্ব পালনের ১০০ দিনের অগ্রাধিকারভিত্তিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। নগরের ৪১টি ওয়ার্ডে একযোগে এ কর্মসূচি চলবে বলে জানানো হয়।

মেয়র বলেন, জনদুর্ভোগ লাঘব ও নাগরিক স্বস্তি ফেরাতে জনগুরুত্বপূর্ণ সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে ১০০ দিনের মধ্যে সেগুলো ধাপে ধাপে সমাধানের চেষ্টা করা হবে।

নগরবাসীকে সতর্ক করে দিয়ে রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, কেউ নালা-নর্দমা, খাল ও পানি চলাচলের পথে পলিথিন এবং প্লাস্টিক বর্জ্য ফেলতে পারবেন না। এটা দণ্ডনীয় অপরাধ। তিনি বলেন, মশার ওষুধের মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় তা ঢাকায় ল্যাবে পাঠিয়ে যাচাই-বাছাই করা হবে। মেয়র বলেন, নগরীর অনেক সড়ক যান চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এগুলো একসঙ্গে সংস্কার বা মেরামত করা সম্ভব নয়। যেগুলো বেশি বেহাল, সেগুলো আগেভাগে মেরামত ও খানাখন্দ ভরাট করা হবে।

সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় কাউন্সিলর এসারারুর হক, মোহাম্মদ শহিদুল আলম, এম আশরাফুল আলম, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মফিদুল আলম, চসিক আঞ্চলিক অফিস জোন-৬-এর নির্বাহী কর্মকর্তা আফিয়া আকতার, মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম, রাজস্ব কর্মকর্তা শাহেদা ফাতেমা প্রমুখ।

মতামত দিন