‘পরীমনির আচরণ আমাদের ছেলে মেয়েদের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে’

মাদক মামলায় গ্রেফতারের পর বর্তমানে জামিনে কারাগারের বাহিরেই রয়েছেন চিত্রনায়িকা পরীমণি। কারাগার থেকে মুক্তির পর বেশ ফুরফুরেই দেখা গেছে এই নায়িকাকে। বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে ভক্তদের কাছে নিজের বার্তাও ছড়িয়ে দিচ্ছেন তিনি। এই যেমন, বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় ফেসবুকে নিজের পেজে দুটি ছবি প্রকাশ করেছেন পরীমণি। সেখানে তাকে দেখা গেছে পাতলা টপস ও শর্টসে। ছবিতে তার উন্মুক্ত উরু, হাতে সিগারেট, আর হাতের তালুতে লেখা সেই ‘…ক মি মোর’ বার্তাটি পেয়েছে বেশি প্রাধান্য। যার ফলে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে ছবিগুলো।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরীমণির এমন আচরণ ভালোভাবে নেয়নি অনেকেই। তাদের মন্তব্য একজন সেলিব্রেটির কাছে এমন আচরণ কাম্য নয়। বিষয়টি নিয়ে নিজের ফেসবুক ওয়ালে কথা বলেছেন রাজনীতিবিদ এবং বাংলাদেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ। তিনি ফেসবুকে লিখেন, একজন সেলেব্রিটির কাছ থেকে এরকম অশোভন আচরণ কাম্য নয়। আমাদের ছেলে মেয়েদের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে……’

পরীমণির ওই ছবি নিয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত একটি খবর শেয়ার করে কথাগুলো লিখেছেন সোহেল তাজ। এর আগে মাদক মামলায় মাস খানেক হাজতে থাকার পর পরীমণি যখন জামিনে মুক্ত হয় তখন জেল গেটে এসেই বার্তা দেন ‘ডোন্ড লাভ মি বিচ’। এ বার্তার ব্যাখ্যায় পরীমণি পরে জানান, যারা তাকে ভালোবাসা দেখায় কিন্তু আসলে তারা কেউ তাকে ভালোবাসে না। কাছের মানুষ হয়ে থাকার অভিনয় করেন মাত্র। তাদের উদ্দেশ্য করে এই বার্তা।

সম্প্রতি আদালতে হাজিরা দিতে যান পরীমণি। সে সময় হাত উচিয়ে যখন সবার অভিবাদন নিচ্ছিলন তখন তার হাতে লেখা বার্তাটি দেখে চমকে যান অনেকেই। সেখানে লেখা ছিলো ‘ ফা… মি মোর’। এমন লেখার কারণে পরীমণির আগের করা সাহসী বার্তা অনেকটাই আড়ালে পড়ে।

মতামত দিন