করোনার ট্যাবলেট আসছে, মৃত্যু অর্ধেকে আসবে দাবি গবেষকদের

করোনার চিকিৎসায় টিকা আবিষ্কারের পর খুব শিগগির বাজারে আসছে এর ওষুধ। এর ব্যবহার শুরু গলে করোনায় মৃত্যু ও হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা অর্ধেকে নেমে আসছে বলে দাবি করছেন গবেষকরা। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি।

এই ওষুধের প্রস্তুতকারক মার্ক বলেন, করোনা রোগীদের জরুরী ভিত্তিতে সেবা দেওয়ার জন্য আমরা খাদ্য ও ওষুধ অধিদফতরের কাছে আবেদন করবো। আশা করছি কিছুদিনের মধ্যেই তারা জরুরী ব্যবহারের জন্য এই ওষুধের অনুমোদন দেবে। যদি এমন হয়, তাহলে আমাদের এই ওষুধ বিশ্বের বুকে প্রথম করোনার ওষুধ হবে।

এপি জানায়, গবেষণায় ৭৭৫ জন স্বেচ্ছাসেবির ওপর ওষুধটি প্রয়োগ করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৮ শতাংশ করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। ১৪ শতাংশ সামান্য অসুস্থতা অনুভব করেছে। তবে কারো মৃত্যু হয়নি।

জানা যায়, মেরেক এবং রিজব্যাক বায়োথেরাপিউটিকস নামক মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান এই ওষুধটি নিয়ে গবেষণা করছে। এর নাম দেওয়া হয়েছে মোলনুপিরাভির।

 

গবেষণায় যুক্ত থাকা গবেষকরা দাবি করছেন, পরীক্ষার স্তর পেরোলে এবং ছাড়পত্র মিললেই বাজারে চলে আসবে এই ওষুধ। শরীরে কোভিড ধরা পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই এই ধরনের ওষুধ খাওয়া শুরু করে দেওয়া যেতে পারে। এতে উপসর্গ বড় আকার নিতে পারে না। উত্তর ক্যারোলাইনা চ্যাপেল হিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইরোলজিস্ট টিমোথি সিয়াহান বলেন, ‘‘শুধু নিজেকে সুস্থ করে তোলাই নয়, অন্যের শরীরে সংক্রমণ ছ়ড়িয়ে পড়া রুখতেও কার্যকরী হয়ে উঠতে পারে এই ওষুধ।’’

মতামত দিন