দেশপ্রেমিক কোন কর্মকর্তা রেলের সম্পদকে বেনিয়া গোষ্ঠীর হাতে তুলে দিতে পারে না


মহান মুক্তিযুদ্ধে রেলের অবদান ঐতিহাসিক। তৎকালীন রেল কর্মকর্তারা দেশের জন্য জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেছেন, দেশের জন্য কাজ করেছেন। কিন্তু বর্তমানে কর্মকর্তাদের দেশপ্রেম নেই উল্লখ করে বক্তারা বলেছেন, দেশপ্রেমিক কোন কর্মকর্তা রেলের সম্পদকে বেনিয়া গোষ্ঠীর হাতে তুলে দিতে পারে না।
বক্তারা আরো বলেন, ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতা কোন বেনিয়া গোষ্ঠীকে লুটপাট করার জন্য নয়।
মহান মুক্তিযুদ্ধে রেলের অবদান অনেক বেশি, একদিনে তেরশ বেশি রেলওয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারী ও তাদের আত্মীয় পরিজন শহীদ হয়েছে।বর্তমানে কর্মকর্তাদের দেশ প্রেম নেই, দেশ প্রেমিক কোন কর্মকর্তা রেলের সম্পদকে বেনিয়া গোষ্ঠীর হাতে তুলে দিতে পারে না।
সিআরবিতে হাসপাতাল প্রকল্প বাতিল করার দাবিতে নাগরিক সমাজ চট্টগ্রামের ধারাবাহিক আন্দোলন চলছে গত তিন মাস ধরে।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) সমাবেশে বক্তারা আরো বলেন এটি চট্টগ্রামের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত একটা স্থান, এখানে পুরাত ইউরোপীয়ান ক্লাব রয়েছে, কোন শুভ বোধগম্য মানুষ সিআরবির মত নৈসর্গিক সৌন্দর্য এলাকাকে ধ্বংস হতে দিতে পারে না। আমরা আশা করবো কর্তাদের অশুভ হাত থেকে এই এলাকা রক্ষা পাবে।
রেলওয়ে সাবেক কর্মকর্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউসুফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বীরর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ, বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. ইদ্রিস আলী, কবি হোসেইন কবির, কেন্দ্রীয় জাসদ নেতা জসিমউদদীন চৌধুরী বাবুল, বেলায়ত হোসেন, মোরশেদ আলম চৌধুরী,মাঈন উদ্দিন কোহেল, ঋত্বিক নয়ন, দিলরুবা খানম,গোলাম মোস্তফা মুশতাক, সাবের আহমেদ, বিপ্লব কুমার সেন, মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি, মোহাম্মদ রুবেল শিকদার, আওয়ামী লীগ নেতা তাপস দে, সাজ্জাদ হোসেন জাফর মায়মুন উদ্দিন মামুন, মোহাম্মদ হানিফ, নুরুল আজম, মোহাম্মদ তামিম, তানভীর মেহেদী মাসুদ, নোমান চৌধুরী রাকিন, এম ইউ সোহেল, ইমরান হোসাইন ইমন, সাঈদ বিন আব্দুল্লাহ নাহিদ, ইশতিয়াক নকিব রেশাদ প্রমুখ।

মতামত দিন