কক্সবাজারের ত্রাস ইয়াবা শাকিল আটক, সহযোগীদের ধরতে মাঠে আছে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃকক্সবাজার শহর জুড়ে ছিনতাইকারী, মাদককারবারি ও কিশোর গ্যাং লিডারদের রাম রাজত্ব চলে আসছিলো দীর্ঘদিন ধরে।

এসব অপরাধীর রাজত্ব ধ্বংস করতে প্রতিনিয়ত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। তারই ধারাবাহিকতায় গত ২০ই ডিসেম্বর (রোববার) রাত ০৮.৪৫ মিনিটের সময় শহর পুলিশ ফাঁড়ির একটি চৌকস টিম লাইট হাউস পাড়ার জিয়া গেস্ট এলাকায় অভিযান চালিয়ে কিশোর গ্যাং লিডার ও পেশাদার ছিনতাইকারী আরাফাত প্রকাশ শাকিল (২৫) কে গ্রেফতার করে । সে শহরের বাদশাঘোনার বাসিন্দা মৃত ইসলাম ও আয়েশা প্রকাশ আয়েশা সুন্দরীর ছেলে। গ্রেফতারের সময় তার থেকে ছিনতাইকৃত Samsung A10 মোবাইল উদ্ধার করে যা উপস্থিত স্থানীয় জনগনের সম্মুখে জব্দ তালিকা মুলে জব্দ করা হয়।

শাকিল দীর্ঘদিন ধরে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের পাশাপাশি ছিনতাই মাদককারবারসহ কিশোর গ্যাং লিডার হিসেবে বেশ আলোচিত। সুত্রে জানা যায়, তার পরিচালিত কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা স্কুল শিক্ষার্থী ও স্থানীয় জনসাধারণদের কাছ থেকে ছিনতাইসহ চুরিকাঘাত করে আসছে বলে দীর্ঘদিনের অভিযোগ রয়েছে।

উল্লেখ্য যে, কক্সবাজার জেলা পুলিশের সিদ্ধান্তক্রমে শহরের অন্যতম ক্রাইমজোন বাদশাঘোনায় পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করলে মানুষ অনেকটা স্বস্থির নিঃশ্বাস ফেলতে পারতো এবং আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিকতা ফিরিয়ে আসতো। শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন দ্বায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে অল্প সংখ্যক জনবল নিয়েও নিয়মিত সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, কিশোর গ্যাং লিডার ও পেশাদার ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে আসছে যার ফলে অনেক কিশোর গ্যাং লিডার গ্রেফতারও হয়েছে আবার অনেকে পুলিশের সাথে বন্ধুকযূদ্ধে নিহতও হয়েছে।

আটককৃত উক্ত আসামি শাকিল দীর্ঘদিন ধরে পলাতক থেকে শহর এলাকায় ছিনতাই করে আসছিল। আসামির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে জানান কক্সবাজার শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আনোয়ার হোসেন।

মতামত দিন