‘আমি ও আমার ৩ মন্ত্রী শিগগির পদত্যাগ করবো’ (ভিডিও)

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, সরকারের সাথে আলোচনা চলছে, মন্ত্রিপরিষদ থেকে আমি ও আমার তিন মন্ত্রী কিছু দিনের মধ্যে পদত্যাগ করবো। সরকারের মন্ত্রীত্ব নেয়ায় জাপার ভাবমুর্তি নষ্ট হচ্ছে। আমরা তা হতে দিতে পারি না।

রংপুরের সার্কিট হাউসে শুক্রবার দুপুরে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এরশাদ বলেন, বিরোধী দল হিসাবে জাপার মন্ত্রীত্ব গ্রহণ ঠিক হয়নি। বিরোধী দল নয়, আগামীতে সরকার গঠনের হিসাব- নিকাশ করে এগিয়ে যাচ্ছে জাপা।

আগামী নির্বাচনে বিএনপির অংশ নেয়ার ব্যাপারে এরশাদ বলেন, তাদের নেতৃত্ব শূন্য হয়েছে। একাদশ নির্বাচনে আসবে কি আসবে না সেটি তাদের নিজস্ব ব্যাপার।

বিএনপির সাথে জাপার জোট করার কোনোই সম্ভাবনা নেই জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে বিএনপি আসবে কিনা সে ব্যাপারে আমার যথেষ্ঠ সন্দেহ আছে। তারপরেও সরকার চেষ্টা করছে, আমরাও মনে করি তাদের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা উচিত।

খালেদা জিয়া কয়েকদিন কারাগারে থাকা অবস্থায় তার জামিন পাওয়া নিয়ে হৈ-চৈ করা প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, আমি ৬ বছর ২ মাস কারাগারে ছিলাম। আমার বিরুদ্ধে সব মামলাই ছিল জামিন যোগ্য। তারপরেও আমি জামিন পাইনি। হাইকোর্ট আদেশ দেয়ার পরেও আমাকে সংসদে আসতে দেয়া হয়নি। পৃথিবীর কোনো দেশে কোনো নেতাই আমার মতো নির্যাতন ভোগ করেনি। আমার প্রতি যে অবিচার করা হয়েছে তার কোনো নজির নেই।

নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, দেশের রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে বিদেশিরা কোনো প্রভাব খাটাবে না। নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী।

দলের মহাসমাবেশ সম্পর্কে জাপা চেয়ারম্যান এরশাদ বলেন, এই মহাসমাবেশের মাধ্যমে তারা দলের শক্তি প্রদর্শন করবেন।

এসময় তার সাথে ছিলেন, জাপার কো-চেয়ারম্যান ও এরশাদের ছোট ভাই জিএম কাদের, দলের মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, জাপা নেতা মেজর (অব.) খালিদ, রংপুর সিটি মেয়র ও মহানগর জাপার সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক এস এম ইয়াসির, যুবসংহতির নেতা আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।

এরআগে সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ রংপুর সার্কিট হাউসে এসে পৌঁছালে রংপুরের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান পিপিএম এবং রংপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) রাশিদুল মান্নাফ।

পরে তাকে গার্ড অব অর্নার দেয়া হয়।

মতামত দিন