মিরসরাইয়ে ঝুঁকিপূর্ণ কালভার্ট, যান ও জন চলাচলে দূর্ভোগ

মিরসরাইয়ে কালভার্টের একাংশ দেবে গিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় যান ও জন চলাচলে দূর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে। উপজেলার জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের দেওয়ানপুর-ভগবতীপুর-পরাগলপুর গ্রামের সংযোগ সড়কে এই ঝুঁকিপূর্ণ কালভার্টটি ভেঙ্গে গিয়ে যেকোনো মুহুর্তে ঘটতে পারে দূর্ঘটনা। প্রতিদিন এই কালভার্টটি দিয়ে সিএনজি অটোরিক্সা, পিকআপ, স্কুল কলেজগামী শিক্ষার্থীসহ হাজারো মানুষ ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। কিন্তু জনপ্রতিনিধিরা বারবার প্রতিশ্রুতি দিয়ে কোনো প্রকার সংস্কার বা নির্মাণ করেনি অদ্যবধি। ফলে এলাকাবাসীর মধ্যে এক প্রকার ক্ষোভ বিরাজ করছে ।

জানা গেছে, এই কালভার্টটি প্রায় ৬০ বছর পূর্বে নির্মিত হলেও এই পর্যন্ত কোনো প্রকার সংস্কার কাজ করা হয়নি। বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও বন্যায় কালভার্টটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। গত বর্ষায় কালভার্টটির একাংশ ভেঙ্গে দেবে যায় ফলে কালভার্টটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। কালভার্টটির পাশাপাশি ভগবতীপুরগামী দেওয়ানপুর রোডটিও ভেঙ্গে গিয়ে যান ও জন চলাচলে দূর্ভোগ প্রতিনিয়ত বাড়ছে।

এই ব্যাপারে এলাকাবাসী হাসেম মেস্তরী, দুলাল মিয়া, মিজান উদ্দিন সবুজ, আলা উদ্দিন সওদাগর, সোলেমান জানান, প্রতিবার নির্বাচনে স্থানীয় সংসদ সদস্য, চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যরা প্রতিশ্রুতি দিলেও এখনো পর্যন্ত তা আলোর মুখ দেখেনি। কখন এই ঝুঁকিপূর্ণ কালভার্টটি নির্মাণ করবে তাও বলতে পারছিনা। দ্রুত নির্মাণ করে হাজারো মানুষের দূর্ভোগ লাঘব করতে এলাকাবাসী মিরসরাইয়ের সাংসদ গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের নিকট জোর দাবী জানান।

এ ব্যাপারে স্থানীয় চেয়ারম্যান মকসুদ আহম্মদ চৌধুরীর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, এই কালভার্টটির নির্মাণ ব্যয় (প্রায় ১৮ লক্ষ টাকা) বহন করার মতো বাজেট ইউনিয়ন পরিষদের নেই। এটি নির্মাণ করতে হলে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) এর মাধ্যমে করতে হবে।

 

মতামত দিন