শচীনকে অবসরে বাধ্য করা হয়েছিল!

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২৪ বছরের ক্যারিয়ারের ইতি টেনে ২০১৩ অবসরে যান ক্রিকেট ঈশ্বর শচীন টেন্ডুলকার। ভারতীয় এই মহাতারকার বিদায় নিয়ে নানা প্রশ্ন নানা মত রয়েছে। সর্বশেষ তার অবসর নিয়ে বোমা ফাটালেন টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন প্রধান নির্বাচক সন্দীপ পাতিল।

তার মতে, ভারতের ক্রিকেট কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার নিজে থেকে অবসরের ঘোষণা না দিলে তাকে দল থেকে ছেঁটে ফেলা হতো।

সম্প্রতি দেশটির একটি প্রথম সারির সংবাদ মাধ্যামে বিস্ফোরক সাক্ষাৎকারে পাতিল জানান, ২০১২ সালের ডিসেম্বর মাসে আমরা (নির্বাচকমণ্ডলী) শচীনকে তাঁর ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হয়। তখন শচীন জানিয়েছিল, তিনি তখনও অবসরের কথা ভাবছেন না। তবে ম্যানেজমেন্ট এবং বোর্ড তাঁকে নিয়ে যে একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে কথা স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়।

শচীন বুঝতে পারে এবং একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়। শচীন তখন সরে না গেলে, তাঁকে দল থেকে বাদ দেওয়া হত বলেও জানান সন্দীপ পাতিল।

শচীনের অবসর প্রসঙ্গে সন্দীপ পাতিল আরও বলেন, মাস্টার ব্লাস্টার টেস্ট ক্রিকেটেই মনোনিবেশ করেছিল। আমার এবং সঞ্জয়ের (তৎসময়ের বিসিসিআই সেক্রেটারি) সঙ্গে কথা বলেই একদিনের আন্তর্জাতিক থেকে অবসর নেওয়ার কথা জানায় শচীন।

মতামত দিন