‘শিক্ষামন্ত্রী চোর হতে পারেন, আমরা কেউ নই’

নিউজ ডেস্ক: শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের বক্তব্য ঘিরে সরকারের অভ্যন্তরে তোলপাড় চলছে। বিব্রতকর পরিস্থিতির মুখোমুখি পড়েছেন মন্ত্রীরা। প্রশাসনের কর্মকর্তারাও অসন্তুষ্ট। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ রোববার শিক্ষাভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে কর্মকর্তাদের সহনীয় পর্যায়ে ঘুষ খাওয়ার অনুরোধই করেননি, বলেছেন, খালি যে অফিসার চোর, তা না, মন্ত্রীরাও চোর, আমিও চোর।’

শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যে ঢালাওভাবে ধুয়ে দেয়া হয়েছে সরকারের মন্ত্রী ও কর্মকর্তাদের। এতে তার বক্তব্যের ভিডিও ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর থেকে সরকারের মধ্যে অসন্তোষ তৈরি হয়েছে। আগামী সোমবার মন্ত্রীসভার বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রীর তোপের মুখে পড়ার আশংকা রয়েছেন আভাস পেয়ে মঙ্গলবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বক্তব্যের ব্যাখ্যাও দেয়া হয়েছে।

এদিকে, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের কাছে শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়ায় তিনি তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন। স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী পাগলের প্রলাপ বকেছেন, তিনি চোর হতে পারেন; আমরা কোনো মন্ত্রী চোর নই।’

উল্লেখ্য, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে বিভিন্ন বিষয়ে যারা প্রতিবেদন দেন, সেই কর্মকর্তাদের ‘সহনশীল মাত্রা’য় ঘুষ খেতে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের পরামর্শ দেওয়ার একটি ভিডিও নিয়ে চলছে আলোচনা। শিক্ষা ভবনে রোববার পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তরের (ডিআইএ) কর্মকর্তাদের ল্যাপটপ বিতরণ অনুষ্ঠানে মন্ত্রী দুর্নীতির প্রসঙ্গে কথা বলেন।

ডিআইএ কর্মকর্তারাই দেশের ৩৬ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে সরকারের কাছে প্রতিবেদন দেন, যার উপর ভিত্তি করে নানা সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে থাকে।

ভিডিওতে নাহিদকে বলতে শোনা যায়, ‘স্কুলে খাম তৈরি করা থাকে, আপনার কাজ হল আপনি গেলেন, গেলে আপনার খামটা আপনার হাতে ধরাই দিলে আপনি খাইয়্যা-দাইয়্যা তারপরে আসার সময় চলে আসবেন। আইস্যা রিপোর্ট দেবেন ঠিক আছে।’

‘সব জায়গায় যে বলেছি অপচয়-দুর্নীতি আমরা কঠোর অবস্থান নেব এবং দুর্নীতির ক্ষেত্রে আমাদের জিরো টলারেন্স। এটা আমাদের বলতে হবে… কিন্তু আমি ইডির (ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্ট) সভায় বলছি, আপনারা দয়া করে ভালো কাজ করবেন। আপনাদের প্রতি আমার অনুরোধ, আপনারা ঘুষ খাবেন, তবে সহনশীল হইয়্যা খাবেন। অসহনীয় হয়ে বলা যায় আপনারা ঘুষ খাইয়েন না, এটা অবাস্তবিক কথা হবে।’

বাংলাদেশ ঘুষের ব্যাপকতা কতটা প্রবল আকার ধারণ করছে তা নিয়েও কথা বলেন এক সময়ের বাম নেতা নাহিদ।

‘নানা জায়গায় এ রকম হইছে, সব জায়গাতেই এ রকম হইছে। খালি যে অফিসার চোর, তা না, মন্ত্রীরাও চোর, আমিও চোর। … এই জগতে এ রকমই চলে আসতেছে। সবাইকে আমাদের পরিবর্তন করতে হবে।’

তবে বিভিন্ন কাজ ডিজিটাল পদ্ধতিতে করার ফলে বর্তমান সরকার আমলে দুর্নীতি কমেছে বলে দাবি করেন শিক্ষামন্ত্রী।

মতামত দিন