চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে আড়াই কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ

চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ বিমানের এক যাত্রী ও বিমানের আসনের নিচ থেকে প্রায় আড়াই কোটি টাকার ৪৮টি স্বর্ণবার জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতর।

শনিবার সকালে সৌদি আরবের জেদ্দা থেকে আসা বিমানের বিজি-১৩৬ ফ্লাইট থেকে এসব স্বর্ণ জব্দের সঙ্গে এক যাত্রীকেও আটক করা হয়। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সন্দেহভাজন আরও ছয় জনকে আটক করা হয়েছে বলে শুল্ক কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

শুল্ক কর্মকর্তারা আরও জানান, জব্দ করা পাঁচ কেজি ৫৯৮ গ্রাম স্বর্ণের আনুমানিক মূল্য দুই কোটি ৪০ লাখ টাকা।

এ প্রসঙ্গে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক উইং কমান্ডার সারোয়ার-ই-জামান বলেন, ‘বাংলাদেশ বিমানের পক্ষ থেকেই আমাদেরকে ফ্লাইটটিতে স্বর্ণ থাকার বিষয়টি জানানো হয়। সাথে সাথে নিরাপত্তা কর্মকর্তা এবং শুল্ক গোয়েন্দার কর্মকর্তাদের নিয়ে আমরা সেই ফ্লাইটটিতে যাই। সব যাত্রীকে নামিয়ে আনা হয়। এসময় একজনের শরীরে তল্লাশি চালিয়ে ১০টি স্বর্ণবার ও ৩৮টি বার বিমানের একটি আসনের নিচে ও সিট কাভারের ভেতর থেকে উদ্ধার করা হয়।’

শুল্ক কর্মকর্তারা জানান, সকাল ১১টা ৪০টা মিনিটে জেদ্দা থেকে বিজি-১৩৬ ফ্লাইটটি আসে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই ফ্লাইটের এক যাত্রীকে তল্লাশি করে ১০টি স্বর্ণবার উদ্ধার করা হয়। পরে ওই বিমানের আসনের নিচ থেকে আরও ৩৮টি স্বর্ণবার উদ্ধার করা হয়। এসময় ওইসব আসনে থাকা আরও ছয় জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়।

ওই ফ্লাইটের এক যাত্রী যার চট্টগ্রামে নেমে যাওয়ার কথা তিনিই মূলবাহক হতে পারেন বলে ধারণা করছেন শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। ফ্লাইটটি বেলা ১২টা ৫০ মিনিটে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও তল্লাশির কারণে সোয়া ৩টার পর সেটি ছেড়ে যায় বলে জানান তারা।

এ প্রসঙ্গে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একজনকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে যাদের সিটের নিচ থেকে স্বর্ণবার উদ্ধার করা হয় তাদেরও প্রথামিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়।’

মতামত দিন