নারীদেহের স্পর্শকাতর স্থান ধরে গ্রেফতারের ছবি ভাইরাল

শনিবার সরকারি চাকুরির বয়স ৩৫ করার দাবিতে শাহবাগে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানবন্ধন করে করে সাধারণ ছাত্র পরিষদ। এ সময় বেশ কয়েকজন আন্দোলনকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এদিন এক নারী আন্দোলনকারীর স্পর্শকাতর স্থান ধরে পুলিশ টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাচ্ছে- এমন একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

এর সাথে আবারো আন্দোলনকারীদের প্রতি পুলিশের পেশাদারিত্বের প্রশ্নটি সামনে চলে এসেছে।

অনেকেরই প্রশ্ন, আন্দোলন থেকে পুলিশি গ্রেপ্তার হওয়া অস্বাভাবিক কিছু না। কিন্তু একজন পুরুষ পুলিশ সদস্য একজন নারী আন্দোলনকারীর স্পর্শকাতর স্থানে ধরে জনসম্পুখে টেনে হিঁচড়ে আটক করতে পারেন না। নারীদের আটক করতে নারী পুলিশ সদস্যরা কোথায় ছিলেন?

সকাল সাড়ে ১০টার পর আন্দোলনরতরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে যাত্রা শুরু করে। পথে পথে কয়েক বার পুলিশি বাঁধা উপেক্ষা করেও আন্দোলনকারীরা সামনে যেতে থাকে। বাংলামোটর পর্যন্ত পৌঁছালে হঠাৎ মারমুখি পুলিশের লাঠিপেটায় ছত্রভঙ্গ হয়ে যায় আন্দোলনকারীরা। গ্রেফতার হন ২৫জন। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ঐ নারী আন্দোলনকারীকে আটকের ছবি ভাইরাল হয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

ছবিতে দেখা যায় চাকুরির বয়স ৩৫ করার দাবিতে ঐ নারী আন্দোলকারী বোরকা ও হিজাব পরে আন্দোলনে অংশ নেন। মানবন্ধনে অংশগ্রহনের পূর্বে জাতীয় জাদুঘরের সামনে বন্ধুদের সাথে হিজাব পরা অবস্থায় গ্রুপ ছবি তোলেন সেই নারী। তবে বাংলামোটরে মিছিলের মধ্য থেকে পুলিশ তার বুকে হাত দিয়ে হিজাব ও বোরকা টেনে জোর করে গ্রেফতার করার চেষ্টা করছে। নারীটি প্রাণপণ চেষ্টা করছে পুলিশের হাত থেকে নিজেকে ছাড়িয়ে নিতে। এ সময় তাকে পুলিশের হাত থেকে ছাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন তার সহপাঠিরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারাও ব্যর্থ হন।

পুলিশের এমন অদ্ভুত আচরণে ক্ষুদ্ধ আন্দোলনে অংশগ্রহণকারীরাও। তারা এর তীব্র নিন্দা ও ঐ পুলিশ সদস্যের বিচার দাবি করেছেন।

মতামত দিন