আহতদের দেখতে কাঠমান্ডু মেডিকেলে বিমানমন্ত্রী

নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইউ-এস বাংলার বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় আহতদের দেখতে কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজে গেছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে তিনি সেখানে যান। এসময় আইসিইউসহ বেশ কয়েকটি ইউনিটে গিয়ে আহতদের খোঁজখবর নেন বিমানমন্ত্রী।

মন্ত্রী রোগীদের দেখার সময় সাংবাদিকদেরর ভেতরে প্রবেশ করার অনুমতি দেয়া হয়নি। কেবল একটি টিভি চ্যানেলের সাংবাদিকদের সঙ্গে নিয়ে ভেতরে যান মন্ত্রী।

এর আগে স্থানীয় সময় দুপুর ২ টায় নেপাল বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি। এরপর বিকেল চারটায় গিয়ে দূর থেকে ওই ঘটনাস্থল দেখে কাঠমান্ডুর ইয়ক অ্যান্ড ইয়েপি হোটেলে গিয়ে ওঠেন।সন্ধ্যায় নেপালের সিভিল এভিয়েশনের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বিমানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, নেপালের সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমরা বৈঠক করেছি। তারা আমাদের দুর্ঘটনা সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা দিয়েছেন। আগামীকাল সকাল ৮টায় নেপালের সেনা প্রধানের সঙ্গে বৈঠক করবো। দুপুর ১২টায় নেপালের প্রধানমন্ত্রী খাদগা প্রসাদ শর্মা অলির সঙ্গে বৈঠক করাবো। এরপর দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাবেন বলেও জানান বিমানমন্ত্রী।

কী কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে তা জানতে পেরেছেন কি-না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, তারা পরস্পরকে দোষারোপ করছে। বিমানটির ব্লাকবক্স ও ককপিট ভয়েস রিকোভার করা হয়েছে। তারা তদন্ত করছে। আমাদের দলও তদন্ত করছে।

এরপর বিমান দুর্ঘটনায় আহতদের দেখতে কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজে যান এ কে এম শাহজাহান কামাল।

উল্লেখ্য, নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশের বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় পাইলট, ক্রুসহ বাংলাদেশি ৩৬ জনের মধ্যে ২৬ জন মারা গেছেন। বাকি ১০ জন নেপালের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

মতামত দিন