এলিয়েনের অস্তিত্বে বিশ্বাস করতেন স্টিফেন হকিং

খ্যাতিমান পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং আর নেই। ৭৬ বছরে বয়সে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে গেলেন তিনি। স্টিফেন হকিংয়ের পরিবার তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। বুধবার সকালে যুক্তরাজ্যের ক্যামব্রিজে তার নিজ বাস ভবনে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন হকিং।

মহান এই পদার্থবিজ্ঞানী এলিয়েনে বিশ্বাস করতেন এই খবর বুঝি অনেকেরই জানা নেই। তিনি অতি সম্প্রতি পৃথিবীর বিজ্ঞানীদের সতর্ক করে বলেছিলেন, ‘যদি আমরা ভিনগ্রহের প্রাণিদের অনুসন্ধান বন্ধ করে দেই তাহলে হয়তো তারা আমাদের সবাইকে মুছে ফেলবে। তাই তাদের সম্পর্কে আরো খোঁজ-খবর রাখতে হবে।’

ভিনগ্রহের প্রাণিদের সঙ্গে আলাপ নিয়ে সতর্কবার্তা হকিং আগেও দিয়েছেন। কিন্তু প্রথমবারের সঙ্গে এবারের ঢের পার্থক্য রয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ দৈনিক ইন্ডিপেনডেন্ট। যখন ২০১৫ সালে তিনি ব্রেকথ্রু লিসন প্রকল্পটি চালু করতে সহায়তা করেন, তিনি জানিয়েছিলেন, আমদের বিষয়ে যদি কোনো ভিনগ্রহের প্রাণি শোনে, হয়তো তা আমাদের হত্যা করার জন্য আগ্রহী হবে না- মূলত এর কারণ হতে পারে আমাদের প্রতি তাদের কোনো আগ্রহই নেই।

এনিয়ে হকিং বলেন, ‘যে কোনো সভ্যতা যদি আমাদের পাঠানো বার্তা আসলেই পড়তে পারে, তবে তার জন্য শতকোটি বছর প্রয়োজন। যদি তাই হয় তবে তারা অনেক শক্তিশালী হয়ে যাবে এবং হতে পারে তারা আমাদের এমন মূল্যের বেশি দেবে না, যেমনটা আমরা ব্যাকটেরিয়াকে দেই।’

শুধু ভিনগ্রহের প্রাণি নিয়েই হকিং সতর্ক করেননি স্টিফেন হকিং। এমনকি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) ধীরে ধীরে এতটাই চালাক হতে পারে যে, দুর্ঘটনাবশত তা আমাদেরও হত্যা করতে পারে বলেও জানান হকিং।

তিনি ২০১৫ সালে বলেছিলেন, ‘এআই-এর আসল ঝুঁকি ক্ষতি নয়, তাদের ক্ষমতা। একটি সুপার ইনটেলিজেন্ট এএআই তাদের লক্ষ্য পরিপূর্ণ করার জন্য অনেক ভাল এবং যদি এএআই-এর লক্ষ্য আমাদের সঙ্গে না মিলে থাকে, আমরা বিপদে পড়ব।’

(ঢাকাটাইমস/১৪মার্চ/এজেড)

মতামত দিন