বনানী ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় একজনের জামিন

বিল্লাল হোসেন

বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী ধর্ষণের মামলায় গ্রেপ্তার একজন জামিন পেয়েছেন। বিল্লাল হোসেন নামের ওই আসামি আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে শাফাত আহমেদের গাড়ির চালক।

গতকাল বুধবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২–এর বিচারক শফিউল আজম এই জামিন মঞ্জুর করেন। আদালত সূত্র এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

আদালত সূত্র বলছে, এর আগে শাফাত আহমেদের ব্যক্তিগত দেহরক্ষী আসামি রহমত আলী উচ্চ আদালত থেকে গত জানুয়ারি মাসে জামিন পান।

এই মামলায় এখন তিনজন কারাগারে। তাঁরা হলেন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে শাফাত আহমেদ এবং তাঁর বন্ধু নাঈম আশরাফ ও সাদমান সাকিফ। এই মামলায় এখন পর্যন্ত একজনের সাক্ষ্য শেষ হয়েছে। আরেকজনের সাক্ষ্যগ্রহণ চলছে।

জন্মদিনের পার্টির কথা বলে গত ২৮ মার্চ রাতে বনানীর রেইনট্রি হোটেলে ডেকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়। ঘটনার ৪০ দিন পর এ ব্যাপারে বনানী থানায় মামলা করতে গেলে তা না নিয়ে বাদীকে পুলিশ হয়রানি করে। পরে গত ৬ মে শাফাত, নাঈমসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা নেয়। পাঁচ আসামিকেই গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মতামত দিন