বিএনপি নয় আওয়ামীলীগই দেউলিয়া হয়ে গেছে-মির্জা ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, রাজনৈতিক ভাবে বিএনপি দেউলিয়া হয় নাই বরং আওয়ামীলীগই দেউলিয়া হয়েছে। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিলেই বুঝবেন দেউলিয়া কারা হয়েছে।

দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে আজ বৃহস্পতিবার বিকালে চট্টগ্রামে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

নগরীর নাসিমন ভবনের বিএনপি দলীয় কার্যালয়ের সামনে নুর আহমদ সড়কে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী উপস্থিত হয়। সমাবেশে মীর্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য আন্দোলন করছে না। গণতন্ত্র রক্ষার জন্য আন্দোলন করছে। প্রধানমন্ত্রী হেলিকপ্টারে চড়ে ভোট চেয়ে জনসভা করছে, আর আমাদের সভা করার অনুমতি দিচ্ছে না। তাদের ভয় জনগণ রাস্তায় নামলে তাদের রক্ষা হবে না।

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে সাধারন সম্পাদক আবুল হাশেম বক্করের সঞ্চালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমেদ, ড. মঈন খান, মির্জা মো. আব্বাস, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চেয়ার পার্সনের উপদেষ্টা জয়নাল আবেদিন ফারুক, মীর মো. নাছির উদ্দিন, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী, মো. শাহজাহান, গোলাম আকবর খোন্দকার, মাহবুবুর রহমান শামীম নগর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আবু সুফিয়ানসহ চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিন জেলার বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ।

বেগম জিয়াকে গনতন্ত্রের মা উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন গত ৩৫ বছর ধরে বাংলাদেশে গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য আন্দোলন সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। দুর্নীতির মিথ্যা মামলা দিয়ে আজকে তাঁকে কারাগারে বন্দি করে রেখেছে সরকার।

সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ড. খোন্দকার মোশারফ হোসেন বলেন, সরকার খালেদা জিয়াকে ভয় পায়। সরকার মনে করেছিল খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করে কারাগারে নিক্ষেপ করলে বিএনপি দুর্বল হয়ে পড়বে। কিন্তু গ্রেফতারের পর বিএনপি দুর্বল হয়নি বরং আরো অনেক শক্তিশালি হয়েছে।

প্রসংগত, নগরীর লালদিঘি ময়দানে অনুমতি না পেয়ে নগর বিএনপি তাদের দলীয় কার্যালয়ের সামনেই এ সমাবেশ সম্পন্ন করে।

 

মতামত দিন