একটির দামই ১১৬ কোটি টাকা, ৭ হাজার গাড়ির মালিক তিনি!

হোক দুবাই কিংবা ব্রুনাই, স্বর্ণের ব্যবহারটা সেখানে আর সবার চেয়ে অন্যভাবেই হয়। এখানে ব্রুনাইয়ের সুলতানের প্রসঙ্গেই বলা হচ্ছে। তার বিষয়টাই যেন আলাদা। অনেকেই বলেন, স্বর্ণের প্রতি তার আসক্তি রয়েছে। তার প্রমাণ অন্তত একটি বিশেষ গাড়িতে মেলে।

গাড়িটি বিশেষভাবে বানিয়ে এনেছেন সুলতান হাসান আল বলকিয়াহ। এটি একটি রোলস রয়েস সিলভার স্পার স্ট্রেচ লিমুজিন। গোটা গাড়িটি মুড়ে রয়েছে ২৪ ক্যারেটের সোনা। এর দাম ১১৬ কোটি টাকারও বেশি। গাড়ির সামনে-পিছে বা ছাদে কিংবা চাকায় বিশেষ নকশা করা হয়েছে স্বর্ণ দিয়ে। এমনকি গাড়ির কিছু যন্ত্রাংশও বানানো হয়েছে সোনা দিয়ে।

২০০৪ সালে সুলতান তার ছেলের বিয়েতে যাওয়ার সময় এই গাড়িতে প্রায় ১০ কিলোমিটার সফর করেন। আর এই বিয়ে ছিলো বিশ্বের সর্বাধিক ব্যয়বহুল বিয়ের একটি। এমন বহুমূল্যের গাড়ি তার কাছে রয়েছে আরো অন্তত ৭টি।

গাড়ি সংগ্রহের বাতিক রয়েছে তার। একটি দুটি নয়, তার সংগ্রহে রয়েছে ৭ হাজার গাড়ি। ফেরারিই রয়েছে ৩০০টি। আরো আছে ৬০টি রোলস রয়েস, ১১টি ম্যাকলারেন, ৬টি দাউয়ের পোর্শে ৯৬৩ এলএসএস এবং আরো অনেক দামি দামি গাড়ি।

সুলতান হাসান আল বলকিয়াহর এই রাজ্য পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী রাজ্য। সুলতানের সম্পদ এতটাই বেশি যে দেশ চালাতে জনগণকে ট্যাক্স দিতে হয় না। তিনি দেশটির প্রথম প্রধানমন্ত্রীও বটে। তিনি অর্থ ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বেও রয়েছে। দেশের শিক্ষাখাতকে এগিয়ে নিতে তার অবদান অনেক। তার মধ্যে রয়েছে ব্রুনাই দারুসালাম।

তার আরেকটি অবদান হাতফিজ আল-কুরআন। এটা এক ধর্মনিরপেক্ষ ইনস্টিটিউট। দেশের যেকোনো আচার-অনুষ্ঠানে দেশবাসীকে নিয়ে আনন্দ উদযাপন করেন তিনি।
সূত্র : ইন্টারনেট

মতামত দিন