বাংলাদেশ : ২০১৭ সালে দেশের আলোচিত কুড়ি ঘটনা

ঘটনাবহুল ২০১৭ সাল এমন একটি বছর যে বছরে বাংলাদেশ নিজেই আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবর। কারণ মিয়ানমারে জাতিগত নিধনের শিকার প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয় বাংলাদেশ। এরপর পোপের সফর।

সবচেয়ে আলোচিত রোহিঙ্গা শব্দটি ছাড়াও বছরটিতে দেশের আলোচিত বিষয় ছিলো প্রধান বিচারপতি, পদ্মা সেতুর অগ্রগতি, চিকুনগুনিয়া থেকে রোবট সোফিয়া। বনানী ধর্ষণ, গাজীপুরে ধর্ষণের বিচার না পেয়ে বাবা মেয়ের আত্মহত্যা। ব্লু হোয়েল গুজব নিয়ে কানাঘুষা, নিখোঁজের পর গুমের আশঙ্কা জাগিয়ে কয়েকজনের ফিরে আসা। ছিলো নায়ক রাজ রাজ্জাক, হাসিমুখের আন্তরিক মেয়র আনিসুলের মতো নক্ষত্রদের চিরবিদায়ের শোক, চট্টগ্রামের ১৭ বছরের নগর পিতা মহিউদ্দিন চৌধুরী বিদায় ও তার কুলখানীতে পদদলিত হয়ে ১০ জনের মৃত্যু। বিনোদনের আলোচিত বিষয় শাকিব-অপুর বিচ্ছেদ, ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটকে মাশরাফির বিদায় জানানোর মতো ঘটনা।

দেশের অর্জনের মুকুটে কয়েকটি উজ্জ্বল পালকও যুক্ত হয় ২০১৭ সালে। বিশ্বের প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের ইউনেস্কো স্বীকৃতি এবং বছরের শেষ মাসে লাল-সবুজ জার্সিতে সাফ অনুর্ধ-১৫ জিতে ফুটবলে আশা জাগানো কিশোরীদের হাসি।

গুরুত্ব বিবেচনায় ফিরে দেখা যাক ২০১৭ সালের বাংলাদেশের দিকে।

রোহিঙ্গা ঢলে সীমান্ত খুলে মানবিক বাংলাদেশ
অতীত বছরগুলোতে নানা অজুহাতে মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে দমন অভিযান চালানো হয়েছে। তাদের বাংলাদেশে ঠেলে দিয়েছে বর্মী সেনাবাহিনী। ২০১৭ সালের ২৪ আগস্টে এই পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নেয়। এবছর আগস্টে রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানে আনান কমিশনের রিপোর্ট প্রকাশের পরদিন থেকেই দাউ দাউ করে আগুন জ্বলে রাখাইনে। নদী-সাগর পাড়ি দিয়ে হাটু পর্যন্ত কাদায় দেবে যাওয়া পায়ে হেঁটে বাংলাদেশে ঢুকতে শুরু করে রোহিঙ্গারা। তাদের মুখ থেকেই বাংলাদেশ ও বিশ্ব জানতে শুরু করে এই সভ্য সময়ে বর্বরোচিত হত্যা, ধর্ষণ ও অগ্নিসংযোগের জাতিগত নিধনযজ্ঞের কথা।

শুরুতে সীমান্তে কঠোর হলেও ৭১ সালে এরচেয়েও বেশি বর্বরতার শিকার বাংলাদেশ মানবিক না হয়ে পারেনি। তাই রোহিঙ্গাদের প্রতি মানবিক আচরণের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কক্সবাজারের উখিয়া, কুতুপালংয়ের মতো ১২টি ক্যাম্পে আশ্রয়, খাবার, চিকিৎসা পেতে শুরু করে প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা। একদিকে মানবিক সহায়তা চলে অন্যদিকে চলে মিয়ানমারকে রোহিঙ্গা দমন ও ফিরিয়ে নিতে বাধ্য করার কূটনৈতিক প্রচেষ্টা। বাংলাদেশের পাশে দাঁড়ায় জাতিসংঘসহ অন্যান্য সংস্থা এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের দেখতে আসেন জর্ডানের রানী রানিয়া, তুরস্কের ফার্স্টলেডি, তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম। চীন-জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও কমপক্ষে ৫০টি দেশের রাষ্ট্রদূতরাও রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলো পরিদর্শন করেন। সফরে এসে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো বর্মী বাহিনীর অভিযানকে সরাসরি ‘জাতিগত নিধন’ বলেছেন তুর্কি প্রধানমন্ত্রী।

তবে জাতিসংঘে মিয়ানমারের দমন বন্ধে নেয়া প্রস্তাবে বিপক্ষে অবস্থান নেয় চীন-রাশিয়ার মত দেশ। দুই পরাশক্তির এমন অবস্থানের পরও বাংলাদেশ কূটনৈতিক চেষ্টা চালিয়ে যায়। ২৩ নভেম্বর রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে একটি অ্যারেঞ্জমেন্টে সই করে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার। এই অ্যারেঞ্জমেন্টে বলা হয়, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দিতে-নিতে কাজ করবে একটি ওয়ার্কিং গ্রুপ। এবছরের ১৯ ডিসেম্বর দুই দেশের ৩০ সদস্যের এই ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করা হয়।

ঢাকায় এসে পোপ বলেন ইয়াংগুনে না বলা কথা
ছয় দিনের এশিয়া সফরে পোপ ফ্রান্সিস ২৮ নভেম্বর ইয়াংগুনে পৌঁছান। সেখান থেকে ৩০ নভেম্বর ৩ দিনের বাংলাদেশ সফরে ঢাকায় আসেন তিনি। ৩১ বছর পর এটাই কোন পোপের বাংলাদেশ সফর। এর আগে ১৯৮৬ সালে পোপ জন পল আসেন বাংলাদেশে।

পোপ ফ্রান্সিসের মিয়ানমার-বাংলাদেশ সফরে সবার আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু ছিলো রোহিঙ্গা প্রসঙ্গ। কিন্তু কৌশলগত কারণে পোপ মিয়ানমারে থাকা অবস্থায় কোন আলোচনা, সমাবেশে ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি উচ্চারণ করেননি। পোপকে রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহার না করার পরামর্শ দিয়েছিলেন মিয়ানমারের কার্ডিনাল আর্চবিশপ চার্লস মোং বো। মিয়ানমারে ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের সংখ্যা ছয় লাখের বেশি। মিয়ানমারে সেনামন যুগিয়ে চলা সমর্থিত সুচির সরকারের ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি পছন্দ নয়। তাই মিয়ানমারে প্রথমবারের মতো কোন পোপের সফরে অপ্রয়োজনীয় বিতর্ক এড়াতে চেয়েছিল ভ্যাটিকান।

কিন্তু বাংলাদেশ সফরে এসে ১৮ জন রোহিঙ্গার মুখে তাদের ওপর চালানো নিপীড়নের কথা শুনে আবেগআপ্লুত পোপ বলেন: খুব চেষ্টা করছিলাম যেন কেউ দেখতে না পায়, কিন্তু পারিনি, আমি কাঁদছিলাম। তারাও কাঁদছিলো।

সেসময় পোপ যা বলেন সেটা আক্ষরিক অনুবাদ করলে হয়: আজ রোহিঙ্গাদের মাঝেও সৃষ্টিকর্তার উপস্থিতি।

সুরেন্দ্র কুমার সিনহা, আলোড়ন থেকে সমাপ্তি
এ বছরের ১ আগস্ট সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ঘোষণার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। এরপর থেকেই এ নিয়ে সরকার ও ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ সংক্ষুব্ধ হয়। বিশেষ করে সদ্য সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিভিন্ন পর্যবেক্ষণ নিয়ে ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করে আসছিলেন মন্ত্রী, দলীয় নেতা ও সরকারপন্থী আইনজীবীরা। তারা এস কে সিনহার পদত্যাগের দাবিও তোলেন। সেসময় তার কিছু ‘দুর্নীতি’র কথাও আলোচিত হয়।

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় নিয়ে ব্যাপক আলোচনার পর এক মাসের বেশি ছুটি নিয়ে গত ১৩ অক্টোবর বিদেশে যান বিচারপতি এস কে সিনহা। ছুটি শেষে ৯ নভেম্বর কানাডা যাওয়ার পথে সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ হাইকমিশনে রাষ্ট্রপতি বরাবর পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি। পরের দিন ১০ নভেম্বর পদত্যাগপত্রটি বঙ্গভবনে এসে পৌঁছায়।

এরপর রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করে পরবর্তী ব্যবস্থা নিতে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠান। এর মধ্য দিয়ে প্রধান বিচারপতি হিসেবে বহুল আলোচিত এস কে সিনহা অধ্যায়ের সমাপ্তি হয়।

দৃশ্যমান পদ্মাসেতু
২০১৭ সালে বাংলাদেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নে আলোচিত বিষয় ছিলো স্বপ্নের পদ্মাসেতু। সেপ্টেম্বরের ৩০ তারিখে স্বপ্ন বাস্তব হতে শুরু করে ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের ওপর স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে। এর মধ্য দিয়ে স্বপ্নের সেতুটি দৃশ্যমান হয়।

পারমাণবিক বিদ্যুৎযুগের সূচনা
প্রকল্প গ্রহণের ৫৭ বছর পর ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ পারমাণবিক বিদ্যুতের জগতে প্রবেশ করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজের হাতে পারমাণবিক চুল্লি বসানোর জন্য প্রথম কংক্রিট ঢালাই কাজের (ফার্স্ট কংক্রিট পোরিং বা এফসিপি) উদ্বোধন করেন।

রূপপুর পারমানবিক কেন্দ্র

আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি কমিশনের রীতি অনুযায়ী এই উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ পারমানবিক বিদ্যুতের যুগে প্রবেশ করে। চুক্তি অনুযায়ী এফসিপি উদ্বোধনের দিন হতে ৬৩ মাসের মধ্যে এই প্রকল্পে উৎপাদিত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ হবে।

নৌবহরে সাবমেরিন, ত্রিমাত্রিক নৌবাহিনী যুগের শুরু
১২ মার্চ নৌবাহিনীতে প্রথম সাবমেরিন ‘নবযাত্রা’ ও ‘জয়যাত্রা’র কমিশনিং করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনীতে সাবমেরিন সংযোজনের ঘটনা এটাই প্রথম। এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ নৌবাহিনী ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে এবং সমর শক্তির সক্ষমতায় মাইলফলক রচিত হয়। সাবমেরিন দুটি চীন থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

দুঃসহ যন্ত্রণা চিনিয়ে যায় চিকুনগুনিয়া
২০১৭ সালের এপ্রিল-মে মাসে রাজধানীতে অনেকেই জ্বরে আক্রান্ত হন। শুরুতে সাধারণ ভাইরাস জ্বর কিংবা ডেঙ্গু মনে করা হলেও হাতে-পায়ের গিটে প্রচণ্ড ব্যাথা এবং দীর্ঘদিন দুর্বল করা এই জ্বরের নাম চিকুনগুনিয়া। আগে থেকেই দেশে এডিস মশাবাহিত ভাইরাসে এই জ্বর সনাক্ত হলেও এবারই এতো বেশি মানুষ চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হয়। সামাজিক মাধ্যমে-গণমাধ্যমে সবচেয়ে আলোচিত শব্দ হয়ে যায় চিকুনগুনিয়া। এই মশা তাড়াতে ব্যর্থতার অভিযোগে রাজধানীবাসী দুই মেয়রকে লালকার্ড দেখানোর মতো কর্মসূচি পালন করে।

বনানী রেইনট্রি হোটেলে তরুণী ধর্ষণ, কেঁচো খুড়তে সাপ
বছর জুড়ে আলোচনার শীর্ষে ছিল বনানীতে জন্মদিনের পার্টিতে আমন্ত্রণ জানিয়ে দুই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনা, যা দেশজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি করে। প্রভাব খাটিয়ে অপরাধ লুকানোর চেষ্টা করেও পার পায়নি অভিযুক্তরা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কার্যক্রম নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। তবে অনেক জল ঘোলা করে আসামিরা এখন বিচারের কাঠগড়ায়।

বনানীর এই ধর্ষণকাণ্ডের সঙ্গে সবচেয়ে বেশি আলোচিত ছিল বনানীর হোটেল দ্য রেইনট্রি ও আপন জুয়েলার্স। কারণ ধর্ষণের ঘটনাস্থল ছিল হোটেল দ্য রেইনট্রি। অন্যদিকে ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত প্রধান আসামি সাফাত আহমেদ হচ্ছেন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিমের ছেলে। ধর্ষণের মামলার সঙ্গে হোটেল রেইনট্রি ও আপন জুয়েলার্সের সার্বিক কার্যক্রমও কাঠগড়ায় ওঠে। অভিযোগ ওঠে, অনুমোদন না নিয়েই কার্যক্রম শুরু করেছিল ঝালকাঠির সংসদ সদস্য বি এম হারুনের বড় ছেলে আদনান হারুনের মালিকানাধীন হোটেল দ্য রেইনট্রি। পরে হোটেলটি থেকে অবৈধভাবে রাখা ১০ বোতল মদও জব্দ করে শুল্ক গোয়েন্দারা।

হোটেলটির বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করা হয়। একাধিক চিঠি দিয়েও শুল্ক গোয়েন্দা দফতরে হাজির করা যাচ্ছিল না হোটেল মালিকপক্ষকে। শেষে আদালতের নির্দেশে মালিকপক্ষকে বাধ্য করা হয়।

অন্যদিকে, মালিকের ছেলে সাফাতের ধর্ষণকাণ্ড প্রকাশ্যে আসার পর আপন জুয়েলার্সের স্বর্ণ চোরাচালানের তথ্যও সামনে চলে আসে। একযোগে আপন জুয়েলার্সের পাঁচটি শোরুম সিলগালা করা হয়। জব্দ করা হয় সাড়ে পাঁচ শ কেজিরও বেশি সোনা ও আধা কেজি ডায়মন্ড। শুল্ক গোয়েন্দা কার্যালয়ে ডাকা হয় আপন জুয়েলার্সের তিন মালিক গুলজার আহমেদ, দিলদার আহমেদ সেলিম ও আজাদ আহমেদকে।
দীর্ঘ তদন্তের পর শুল্ক আইনে কর ফাঁকির অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে পাঁচটি মামলা করে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর। তাদের মধ্যে দিলদার আহমেদ সেলিমের বিরুদ্ধে তিনটি এবং বাকি দুজনের বিরুদ্ধে একটি করে মামলা হয়। এরপর প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে শুল্ক গোয়েন্দা ও দুদক। নানা আইনি প্রক্রিয়ার পর আপন জুয়েলার্সের তিন মালিক এখন কারাগারে।

গুমের আশঙ্কা জাগিয়ে তাদের ফিরে আসা
৩ জুলাই ভোর সাড়ে ৫টায় নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন আলোচিত-সমালোচিত কলামিস্ট ফরহাদ মজহার। নিখোঁজের পর তাকে অপহরণের অভিযোগ করে তার পরিবার। তবে ওই রাতে ফরহাদ মজহারকে খুলনার হানিফ পরিবহনের একটি বাস থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

উদ্ধারের পর শুরু হয় নানা বিতর্ক। দীর্ঘ ১০ দিন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তদন্তের একপর্যায়ে পুলিশ জানায়, ফরহাদ মজহার স্বেচ্ছায় ঘর ছেড়েছিলেন।

ফরহাদ মজহার
সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক এ ঘটনাকে ‘নাটক’, ‘মিথ্যাচার’, ‘সাজানো গল্প’ বলে উল্লেখ করেন। আইজিপি দাবি করেন, ‘ফরহাদ মজহার স্বেচ্ছায় ঘর ছেড়েছেন, সরকারকে বিব্রত করার জন্য। আর ‘মিথ্যা নাটক’ সাজানোর দায়ে সমপ্রতি ফরহাদ মজহার দম্পতির বিরুদ্ধে মামলার অনুমতি দিয়েছেন ঢাকা মহানগর হাকিম আদালত।

১০ অক্টোবর ধানমণ্ডির স্টার কাবাবের সামনে থেকে একদল দুর্বৃত্ত পেছন থেকে চোখ বেঁধে অপহরণ করে নিয়ে যায় পূর্ব-পশ্চিম বিডি ডট নিউজ এর সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার উৎপল দাসকে। সেই থেকে নিখোঁজ ছিলেন এই তরুণ সাংবাদিক।

উৎপল
দীর্ঘ ২ মাস ১০ দিন নিখোঁজ থাকার পর বাড়ি ফিরে আসেন সাংবাদিক উৎপল দাস। ২০ ডিসেম্বর ভোর ৫ টায় তিনি নরসিংদীর রায়পুরার থানাহাটি গ্রামে নিজ বাড়িতে পরিবারের লোকজনের সাথে ফিরে এসেছেন। তবে কী কারণে তাকে অপহরণ করা হয়েছিল এ ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। উৎপলের দাবি, টাকার জন্যই তাকে অপহরণ করা হয়।

৭ নভেম্বর রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বেগম রোকেয়া সরণি থেকে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক মুবাশ্বার হাসান সিজার। তাকে খুঁজে বের করার দাবিতে প্রতিবাদে সরব হয় পরিবার,সহপাঠী ও সহকর্মী-শুভানুধ্যায়ীরা।

এর ১ মাস ১৪ দিন পর সাংবাদিক উৎপল দাসের মতো তাকে এয়ারপোর্ট রোডে ফেলে যায় দুর্বত্তরা। ফিরে এসে সিজার বলেন: কে বা কারা আমাকে অজ্ঞান করে নিয়ে যায়। প্রায় চুয়াল্লিশ দিন অন্ধকার ঘরে আমাকে আটকে রাখে। চল্লিশদিন পর আলোর মুখ দেখলাম। গতকাল রাতে হাত বাঁধা অবস্থায় আমাকে এয়ারপোর্ট রোডে ফেলে রেখে যায়। আমাকে রাস্তায় ফেলে দিয়ে বলে, পেছনে তাকাবি না। তাকালে মেরে ফেলবো। আমি একটা সিএনজি নিয়ে বাড়ি রওনা হই। রাস্তায় থাকতে সিএনজিওয়ালার মোবাইল দিয়ে বাবাকে ফোন দেই। বাবা সিএনজি ভাড়া দিয়ে দেয়।

কয়েকদিন আগে ফিরে আসা সাংবাদিক উৎপলের মতো তার কাছেও অপহরণকারীরা টাকা চাইতো বলে তিনি জানান।

বাংলাদেশে ব্লু হোয়েল গুজব
রাশিয়া, ভারতে হতাশাগ্রস্ত ও বিষণ্ণতায় ভোগা কমবয়সীদের আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দেয়া প্রযুক্তি অভিশাপের নাম ব্লু হোয়েল গেম। বাংলাদেশেও আত্মহত্যায় প্ররোচণা দেওয়া ব্লু হোয়েল গেমের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এর শুরু হয়েছিল রাজধানীর হলিক্রস স্কুলের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী অপূর্বা বর্ধনের মৃত্যুর পর। অপূর্বার বাবা-মা দাবি করেছিলেন, তাদের মেয়ে ব্লু হোয়েল গেমের কারণে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে।

এরপর থেকে পুলিশ প্রশাসনসহ সরকারের বিভিন্ন সংস্থা এই গেমের বিষয়ে খোঁজ-খবর নিতে শুরু করে। তবে ওই ঘটনায় পুলিশ দাবি করে, অপূর্বার মৃত্যুর কারণ হিসেবে ব্লু হোয়েলের কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি। ব্লু হোয়েলের কথিত চ্যালেঞ্জ নামে বেশ কিছু ধাপ পার করে তারপর চূড়ান্ত ধাপে আত্মহত্যার চ্যালেঞ্জ দেয়া হয়। কিন্তু অপূর্বার শরীরে এমন কোন চিহ্ন ছিল না।এছাড়া দেশের গেম সংশ্লিষ্টরাও তখন বলেছিলেন, বাংলাদেশে ব্লু হোয়েল গেম বা আত্মহত্যায় প্ররোচণা দেওয়ার মতো কোন কমিউনিটি নেই। তবে এরপরও মিরপুরে, চট্টগ্রামে দুই কিশোরের মৃত্যুর জন্য ব্লু হোয়েল গুজব তোলা হয়।

এটা এতোই আলোচিত হয় যে গুগল ট্রেন্ডিং রিপোর্টে ব্লু হোয়েল লিখে সার্চ দেয়ার তালিকায় শীর্ষে আসে বাংলাদেশের নাম। ১৬ অক্টোবর আত্মহত্যায় প্ররোচণা দেওয়া ব্লু হোয়েল গেমসহ এ জাতীয় সকল অনলাইন গেমের ইন্টারনেট গেটওয়ে লিংক বন্ধের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

ঢাকায় এলো রোবট সোফিয়া
প্রযুক্তি পাড়ার খবরে এ বছর সবচেয়ে বেশি আলোড়ন তুলেছিল হিউম্যানয়েড সোফিয়া। সৌদি নাগরিকত্ব পাওয়া নারী অবয়বের রোবটটি বাংলাদেশে আসছে এমন প্রচারণায় ব্যাপক সাড়া পড়ে। সোফিয়া ঢাকায় আসে ৪ ডিসেম্বর। ৬ ডিসেম্বর বিআইসিসিতে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ এর উদ্বোধন করার আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে যোগ দেয় রোবটমানবী সোফিয়া। পরে তাকে সঙ্গে নিয়েই এ তথ্যপ্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সময় শেখ হাসিনা কিছু কথাও বলেন সোফিয়ার সঙ্গে।

এরপরই সোফিয়াকে একনজর দেখতে দর্শনার্থীর ঢল নামে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে। দু’হাজার দর্শক সোফিয়াকে দেখার কথা থাকলেও হল অব ফেমে সেদিন জড়ো হয় এর কয়েক গুণ দর্শক। সম্মেলন কেন্দ্রের বাইরে তখন আরও কয়েক হাজার মানুষ সোফিয়াকে দেখতে রীতিমতো ধাক্কাধাক্কি-ভাঙচুর শুরু করে।

বছরব্যাপী এসব আলোচিত ঘটনার মধ্যে বিনোদন এবং ক্রিকেট জগতেও ছিলো সাড়া ফেলার মতো ঘটনা।

শাকিব-অপু জুটি ঘিরে জল্পনা
বছরের সবচাইতে আলোচিত বিচ্ছেদ ছিল শাকিব খান এবং অপু বিশ্বাসের বিচ্ছেদ। একটি টিভি চ্যানেলে এ বছর ১০ এপ্রিল উপস্থিত হয়ে শাকিবের সঙ্গে নিজের গোপন বিয়ের ঘোষণা দেন অপু বিশ্বাস। আট বছর আগের সেই বিয়ের খবর জানার কিছুদিন পরেই ২২ নভেম্বর আইনজীবীর মাধ্যমে অপুর কাছে তালাকের নোটিশ পাঠান শাকিব খান। শাকিব-অপুর বিচ্ছেদের বিষয়টি অবশ্য এখনো অমিমাংসিত।

এভ্রিল বাদ, মিস বাংলাদেশ শিরোপা জেসিয়া ইসলামের

তথ্য গোপন করার অভিযোগে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ সুন্দরী প্রতিযোগিতায় বিজয়ী জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলের শিরোপা বাতিল করে দেয় আয়োজকরা।

আয়োজকরা জানান, জান্নাতুল নাঈম তার বিয়ে নিয়ে প্রতিযোগিতার আগে মিথ্যে তথ্য দেওয়ায় তার শিরোপা কেড়ে নেয়া হয়েছে।

তার জায়গায় জেসিয়া ইসলামকে নতুন মিস বাংলাদেশ হয়েছে।

জেসিয়া পরে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন।

চীনের সাংহাই শহরে অনুষ্ঠিত ৬৭তম বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতার সেরা ৪০-এ ছিলেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জেসিয়া ইসলাম। কিন্তু সেমিফাইনাল থেকে বাদ পড়েন এই সুন্দরী।

সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটকে মাশরাফির বিদায়
এ বছর এপ্রিলে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাট টি-২০ কে বিদায় জানান বাংলাদেশের জীবন্ত কিংবদন্তী, নড়াইল এক্সপ্রেস মাশরাফি বিন মর্তুজা। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ১০ বছর ধরে বাংলাদেশ দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন মাশরাফি। সংক্ষিপ্ত এই সংস্করণে দুহাত ভরে দিয়েছেন দলকে।

প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির এই বছরে দেশের মানুষ চিরদিনের জন্য হারিয়েছে তাদের প্রিয় দুই মুখ।

না ফেরার দেশে নায়ক রাজ
বাংলাদেশের জন্য আগস্ট মাসকে নক্ষত্র হারানোর মাস বলা যায়। এবছরের ২১ আগস্ট সন্ধ্যায় বাংলা চলচ্চিত্রের সোনালি অধ্যায়ের নায়কদের রাজা রাজ্জাক দেশকে শোকে ভাসিয়ে চিরবিদায় নেন। ২২ আগস্ট নায়করাজকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাষ্ট্রীয় সম্মান জানানো হয়।

রাজ্জাক

থেমে যায় ঢাকার চাকা ঘোড়ানো চালকের জীবন গাড়ি
৩০ নভেম্বর বাংলাদেশ সময় রাত ১০:২৩ মিনিটে লন্ডনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সবসময় হাসিমুখের মানুষ ঢাকা উত্তরকে মাত্র দুই বছরে সাধ্যমত বদলে দেয়া মেয়র আনিসুল হক।

নাতির জন্ম উপলক্ষে গত ২৯ জুলাই ব্যক্তিগত সফরে সপরিবারে লন্ডনে যান ৬৫ বছর বয়সী আনিসুল হক। ৪ আগস্ট তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে লন্ডনের একটি হাসপাতালে ভর্তি করার পর তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছিল। তিনি সেরিব্রাল ভাসকুলাইটিসে (মস্তিষ্কের রক্তনালীর প্রদাহ) আক্রান্ত হয়েছিলেন।

গণমাধ্যমে, ব্যবসায় এবং সর্বশেষ জনসেবায় কাজ করা মানুষটির চিরবিদায়ে শোক নেমে আসে দেশজুড়ে। সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের নিউজফিড ভারী করে দেয় আনিসুল হকের হাস্যোজ্জ্বল মুখের ছবির সঙ্গে তাকে নিয়ে বড়-ছোট লেখাগুলো। রাষ্ট্রপতি,প্রধানমন্ত্রী, ক্ষমতাসীন দল ও অন্যান্য দলের নেতারা জানান শোক।

মহিউদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যু

প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী মারা যান গত ১৫ ডিসেম্বর রাতে। চট্টগ্রাম নগরীর ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

৭৪ বছরের জীবনে মহিউদ্দিন চৌধুরী চট্টগ্রামের মেয়র ছিলেন ১৭ বছর। একাত্তরের এই মুক্তিযোদ্ধা মৃত্যু পর্যন্ত ছিলেন চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি।

চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের কাণ্ডারি বলে ভাবা হতো তাকে। তবে দলীয় পরিচিতির বাইরে চট্টগ্রামের নেতা হিসেবে দলমতনির্বিশেষে সবার কাছে তিনি যে গ্রহণযোগ্যতা গড়ে তুলেছিলেন তা ছিল অতুলনীয়। চট্টগ্রামের উন্নয়নকে তিনি তার স্বপ্ন হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন। স্পষ্টভাবেই বলতেন দেশের উন্নয়নের স্বার্থেই চট্টগ্রামের উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিতে হবে।

মহিউদ্দিন চৌধুরী কুলখানিতে পদদলিত হয়ে ১০ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রামের সদ্য প্রয়াত সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানিতে গিয়ে পদদলিত হয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়। এতে আহত হয় অর্ধশতাধিক মানুষ।

১৮ ডিসেম্বর সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম নগরের রিমা কমিউনিটি সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটান পুলিশ কমিশনার ইকবাল বাহার চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, কমিউনিটি সেন্টারের গেট দিয়ে ঢোকার রাস্তাটি ঢালু। এই ঢালু রাস্তা দিয়ে প্রবেশের সময় কিছু মানুষ পড়ে যায়। এ সময় পদদলিত হয়ে ১০ জন নিহত হয়েছেন। পরে অবশ্য দুটি তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনেও একই বিষয়টি উঠে আসে।

বড় অর্জন

প্রাপ্তির ঝুলিতে বড় অর্জনও ছিল ২০১৭ সালে। দেশের জন্য গর্বের দুই অর্জন এসেছে এ বছর।

বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ প্রামাণ্য ঐতিহ্য তালিকায় বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ
৩১ অক্টোবর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য (ওয়ার্ল্ডস ডকুমেন্টারি হেরিটেজ) হিসেবে স্বীকৃতি দেয় ইউনেস্কো।মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড-বঙ্গবন্ধু-৭ মার্চ
জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থাটি ঐতিহাসিক এই ভাষণকে ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টারের মেমোরিতে অন্তর্ভুক্ত করে। গুরুত্বপূর্ণ প্রামাণ্য ঐতিহ্যগুলোকে ইউনেস্কো এভাবে সংরক্ষণ করে থাকে। ইউনেস্কোর মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা প্যারিসে সংস্থাটির সদর দপ্তরে জাতির জনকের ভাষণকে ওয়ার্ল্ড’স ডকুমেন্টারি হেরিটেজ হিসেবে সংরক্ষণের ঘোষণা দেন।

ফুটবলে সাউথ এশিয়ার সেরা বাংলাদেশের কিশোরীরা
সাফ অনুর্ধ-১৫ ফুটবলের পুরো টুর্নামেন্টে অসাধারণ কারুকার্য ছড়িয়ে দক্ষিণ এশিয়ার সেরা বাংলাদেশ। শামসুন নাহারের একমাত্র গোল ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করে বাংলাদেশ।

বিজয়ের মাসে বাংলার বাঘিনীর এই অর্জন বছর শেষ মাসে নিয়ে এসেছে শুভ বার্তা, আশার আলো। কারণ কথায় আছে, শেষ ভালো যার, সব ভালো তার।

মতামত দিন