মানব পাচার: পরিচালক অনন্য মামুন আজীবন নিষিদ্ধ

মালয়েশিয়ায় মানব পাচারের অভিযোগে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি থেকে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ হলেন পরিচালক অনন্য মামুন। শনিবার সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

অনন্য মামুনকে আজীবন নিষিদ্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জ্যেষ্ঠ পরিচালক ও পরিচালক সমিতির সহ-সভাপতি মনতাজুর রহমান আকবর। তিনি বলেন, মালয়েশিয়ার পুলিশের কাছে মামুন দোষ স্বীকার করেছে বলে জেনেছি আমরা। তাই সব খোঁজ খবর নেবার পর তার সদস্যপদ আজীবনের জন্য নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। সভা শেষে বিষয়টি সমিতির প্রতিটি সদস্যদের নিকট আনুষ্ঠানিক চিঠি দিয়ে জানানো হবে। মালয়েশিয়ায় সম্প্রতি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আড়ালে ৫৭ জন আদম পাচারের অভিযোগে তরুণ নির্মাতা অনন্য মামুনকে গ্রেফতার করে মালয়েশিয়ান পুলিশ।

গত ২৪ ডিসেম্বর দেশটির রাজধানী কুয়ালালামপুরের এলপি নামের একটি ভবন থেকে তাকেসহ ১৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগের রাতে কুয়ালালামপুরে ওয়াসমা এমসিএ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় ‘বাংলাদেশি নাইট’ নামের ওই অনুষ্ঠান। এতে নাচ-গান পরিবেশন করেন আসিফ, আঁখি আলমগীর, এইচ এম রানা, শখ, আইরিন, ইমন, নিরব, মিষ্টি জান্নাত, আমানসহ অনেকে। এদিকে ২০১৫ সালের ২৬ ডিসেম্বর পরিচালক সমিতির এক জরুরি বৈঠকের মাধ্যমে প্রথম সদস্যপদ বাতিল করা হয় অনন্য মামুনের। সভায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল- যৌথ প্রযোজনার নামে প্রতারণা এবং জাল সার্টিফিকেট দিয়ে পরিচালক সমিতির সদস্যপদ নেওয়া। অবশ্য পরে অঙ্গীকারনামা দিয়ে সেই সদস্যপদ ফিরে পান মামুন। ‘খোঁজ দ্য সার্চ’ দিয়ে চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু করা মামুনের পরিচালনায় অনান্য ছবির মধ্যে রয়েছে ‘আমি শুধু চেয়েছি তোমায়’, ‘অস্তিত্ব’ ইত্যাদি। লাইভ টেকনোলজির প্রযোজনায় তার পরিচালনায় শুটিং শেষ করা সর্বশেষ ছবির নাম ‘বন্ধন’।

মতামত দিন